রাজাপুরে পুলিশের প্রহারে স্বামী-স্ত্রী স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি!!

রাজাপুর প্রতিনিধি: ঝালকাঠির রাজাপুরের নাড়িকেলবাড়িয়া গ্রামের জমা জমির দ্বন্দ্বের অভিযোগ তদন্তে গিয়ে পুলিশ তানজের আলী মোল্লা (৬২) ও তার স্ত্রী হাসিনা বেগম (৪০) কে প্রহার করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার দুপুরে রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি তানজের আলী মোল্লা ও হাসিনা বেগম রাজাপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে চিকিৎসাধিন রয়েছে। এ বিষয়ে তানজের আলী মোল্লা অভিযোগ করেছেন, একই বাড়ির মৃত আকুবর আলী খানের ছেলে প্রতিপক্ষ আজিজ খান ও রহিম খানের সাথে বসত বাড়ির জমি নিয়ে দির্ঘদিন ধরে ঝালকাঠি আদালতে মামলা চলে আসছে। অপরদিকে তাদের সাথে পাঁচবার স্থানীয়ভাবে সালিশ বৈঠক হলেও প্রতিপক্ষরা সালিশী সিদ্ধান্ত মানেনি। তারা হুমকি দিয়ে তাদের বসতভিটার জমি দখল করে নিতে চাচ্ছে। এসব বিরোধের জেরে শনিবার সকালে আজিজ খান ও রহিম খান রাজাপুর থানায়  অভিযোগ দিলে এসআই ফিরোজ আলম দুইজন পুলিশ নিয়ে বাড়িতে অভিযোগের তদন্তে যায়। পুলিশের উপস্থিতিতেই আজিজ খান তানজেরকে জমির মধ্যে খুটি দিতে বলে। আদালতে মামলা চলমান বলে খুটি দিতে অস্বীকার করে এবং পুলিশের ভয়ে ঘরে গিয়ে খাটের নিচে পালায়। সেখান থেকে এসআই ফিরোজ আলম তার পা ধরে টেনে হেঁচড়ে বের করে বুকের উপর ঘুশি দেয় এবং মাথা ধরে ধাক্কা দিয়ে কাঠের ঘরের দড়জার চৌকাঠের উপরে ফেলে দেয়। এসময় তার স্ত্রী হাসিনা বেগম স্বামীকে রক্ষার জন্য এগিয়ে এলে তাকেও চর থাপ্পর দেয় পুলিশ। আভিযোগের বিষয়ে রাজাপুর থানার এসআই ফিরোজ আলম জানান, লিখিত অভিযোগের তদন্তে গেলে পুলিশকে কোন সহযোগীতা না করে উল্টো অভিযুক্ত তানজের ও হাসিনা বেগম দাও নিয়ে পুলিশকে ধাওয়া করে। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে স্থানীয়দের নিয়ে তাদের শান্ত করে। তাদের পুলিশ কোন মারধর করেনি।