রাজধানীতে বসবাসের পরিবেশ টিকিয়ে রাখতে ড্যাপ বাস্তবায়ন জরুরি : এলজিআরডি মন্ত্রী

ঢাকা, ৫ এপ্রিল ২০১৮ : স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, রাজধানীতে বসবাসের পরিবেশ টিকিয়ে রাখতে ডিটেইলড্ এরিয়া প্ল্যান (ড্যাপ) বাস্তবায়ন জরুরি।
মন্ত্রী বুধবার সচিবালয়স্থ স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক প্রণীত ডিটেইল্ড এরিয়া প্ল্যান (ড্যাপ) রিভিউয়ের লক্ষ্যে গঠিত মন্ত্রিসভা কমিটির ১২ তম সভায় সভাপতির বক্তব্যে আরো বলেন, ড্যাপ বাস্তবায়নে জনগণের সুবিধাকে প্রাধান্য দিতে হবে।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে পরিবেশ ও বন মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, ভূমি মন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খান এবং গৃহায়ণ ও গণপূর্ত সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকারসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
মন্ত্রী বলেন, ঢাকাবাসী যাতে সর্বোচ্চ সুবিধা পায় সেভাবে ভূমির ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। জমির শ্রেণী পরিবর্তনের ক্ষেত্রে পরিবেশগত ঝুঁকির বিষয়ও বিবেচনায় রাখতে হবে। আবাসিক এলাকায় শিল্প-কারখানা স্থাপন নাগরিক স্বাস্থ্যে ঝুঁকি তৈরি করে। তাই এ বিষয়টিকে গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করতে হবে।
মন্ত্রী বলেন, ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর ৩ মিটার থেকে ১৫ মিটার নিচে নেমে গেছে। ভূ-গর্ভস্থ পানির উপর নির্ভরতা না কমালে দেশ অচিরেই মরুভূমিতে পরিণত হবে।
তিনি জানান, ভূ-পৃষ্ঠের পানির ব্যবহার বাড়ানোর বিষয়টি এখন জাতীয় নীতিতে অন্তর্ভুক্ত। বৃষ্টির পানি যাতে প্রবেশ করে পানির স্তরকে রিচার্জ করতে পারে সেজন্য ঢাকা মহানগরীতেও পর্যাপ্ত উন্মুক্ত স্থান রাখতে হবে।
মন্ত্রী জানান, সরকার সারাদেশে পুকুর খননের মাধ্যমে ভূ-পৃষ্ঠের পানি ব্যবহার বাড়ানোর প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। বর্ষার পানি ধরে রাখার জন্য পর্যায়ক্রমে দেশের সকল নদ-নদী খনন করা হচ্ছে।
তিনি আরও জানান, শুষ্ক মৌসুমে যাতে খাবার পানি ও সেচ কাজে ব্যবহৃত পানির সংকট না হয় সে লক্ষ্যে সরকার কাজ করছে।