যৌতুকের অত্যাচারে গৃহবধূর আত্মহত্যা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে যৌতুক দাবিতে স্বামীর অত্যাচার সইতে না পেরে মমিনা আক্তার নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের স্বজনরা। রবিবার সকাল ১০টার দিকে উপজেলার আসামপাড়া গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত মমিনা আক্তার উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের বাল্লা আসামপাড়া গ্রামের ফারুক মিয়ার স্ত্রী। তার একটি ১০ বছরের কন্যা সন্তান রয়েছে।

নিহত মমিনার পিতা গোলাম হোসেন জানান, মেয়ে মমিনা আক্তারের সঙ্গে উপজেলার বাল্লা আসামপাড়া গ্রামের ফারুক মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের এক যুগ পেরিয়ে গেলেও যৌতুক দাবি করে আসছিল তার স্বামী ও তার পরিবার। এ নিয়ে প্রায়ই মমিনাকে মারধর করতেন স্বামী ফারুক মিয়া। শনিবার রাতেও তাকে মারধর করা হয়। পরে বাড়িতে ওড়না পেছানো অবস্থায় তার লাশ ঝুলতে দেখেন স্থানীয়রা।

খবর পেয়ে চুনারুঘাট থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) কাশী চন্দ্র শর্মার নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। দুপুরে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা বিষয়টি নিশ্চিত জানা যায়নি।

চুনারুঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কেএম আজমিরুজ্জামান বলেন, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ছাড়া এই মুহূর্তে কিছু বলা যাবে না।