যশোরের ৪ কলেজের শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে

যশোর: অনার্স তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তনের দাবিতে যশোরের ৪টি কলেজের সহস্রাধিক শিক্ষার্থী বিক্ষোভ করেছেন।

শনিবার সকালে এ বিক্ষোভ ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এতে যশোর সরকরি এমএম কলেজ, সরকারি সিটি কলেজ, সরকারি মহিলা কলেজ ও ক্যান্টনমেন্ট কলেজের শিক্ষার্থীরা অংশ নিয়ে বিক্ষোভ ও সমাবেশ করে পরীক্ষার সময়সূচি পরিবর্তনের দাবি জানান।

শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, অনার্স তৃতীয় বর্ষে কলেজগুলোতে ঠিকমত ক্লাস হয়নি। ২১০ দিন ক্লাস না করে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার সময়সূচি ঘোষণা করেছে।

তাদের অভিযোগ, সঠিকভাবে ক্লাস না হওয়ায় তারা পরীক্ষার প্রস্তুতিও নিতে পারেননি। এ অবস্থায় লেখাপাড়া না করে কীভাবে পরীক্ষায় অংশ নেবে তারা!

মাত্র ৬ মাসের মাথায় পরীক্ষা দিয়ে পাস করবে কীভাবে? তারা কি শিক্ষার্থী নাকি শুধু পরীক্ষার্থী? এমন প্রশ্নও তাদের। তাই অবিলম্বের এই সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের দাবি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের। অন্যথায় দাবি আদায়ে আরও কঠিন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী যশোর জেলা সভাপতি পলাশ বিশ্বাস, শিক্ষার্থী ইমরান খান প্রমুখ।

তাদের অভিযোগ, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ স্বৈরাচারী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তারা এমন সময় পরীক্ষার সময়সূচি ঘোষণা করেছে, যে সময় কলেজগুলোতে ক্লাস হয় না। সাধারণ শিক্ষার্থীরা লেখাপড়া করতে পারেনি। কারণ শিক্ষকরা ক্লাস নেননি। যার কারণে পরীক্ষার কোনো প্রস্তুতি নেই শিক্ষার্থীদের। এ কারণে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমেছেন।

অন্তুত এক বছর ক্লাস করতে না পারলে শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না বলেও সাফ জানিয়েছেন যশোরের আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply