ময়মনসিংহে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

ময়মনসিংহ পৌরসভার চরপাড়া কপিক্ষেত এলাকার বস্তি থেকে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানায়, গত ৪ মাস আগে ময়মনসিংহ সদরের পরানগঞ্জ মীরকান্দা পাড়া গ্রামের নওয়াব আলীর কন্যা সাফিয়া আক্তারের (২০) সাথে চরপাড়া কপিক্ষেত বস্তির আবুল হোসেনের ছেলে সাগর হোসেনের (২৫) সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের ১৫ দিনের মাথায় সাফিয়া অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। এই নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। এরই জেরে চলতি মাসের ১ তারিখে সাগর জোরপূর্বক সাড়ে ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী সাফিয়াকে স্থানীয় ক্লিনিকে নিয়ে গর্ভপাত ঘটায়। এই ঘটনা জানাজানি হলে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে দ্বন্দ্ব আরও জোরালো হয়ে ওঠে। গতকাল শুক্রবার মধ্যরাতে এই বিষয় নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে তুমুল ঝগড়া বাধে এক পর্যায়ে সাগর সাফিয়াকে মারধর করে। অসুস্থ হয়ে পড়লে সকালে হাসপাতালে নেয়ার পর সাফিয়া মারা যায়। সাফিয়ার মৃত্যু খবর ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দেয় বাড়ি ঘেরাও করে সাগরকে আটকে রেখে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে।

খবর পেয়ে ময়মনসিংহ কোতোয়ালী মডেল থানা পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার ও সাগরকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পুলিশ পরিদর্শক মনির হোসেন জানান, সাগরকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

Inline
Inline