মৎস্য খাতের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে দক্ষতা, নিষ্ঠা ও আন্তরিকতা সঙ্গে কাজ করুন : রাষ্ট্রপতি

ঢাকা, ২১ জুলাই,২০১৮ : রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ দেশের মৎস্য খাতের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে নিষ্ঠা, দক্ষতা ও আন্তরিকতা সঙ্গে কাজ করতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। তিনি জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ-২০১৮ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে এ আহবান জানান।
মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও আগামীকাল রোববার থেকে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ ২০১৮ পালিত হচ্ছে জেনে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপতি বলেন,দেশের মৎস্য সম্পদ সংরক্ষণ ও মাছের উৎপাদন বৃদ্ধিতে এ উদ্যোগ সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।
আবদুল হামিদ বলেন,নদ-নদী,হাওর-বাওড় সমৃদ্ধ বাংলাদেশের আপামর জনসাধারণের পুষ্টি চাহিদা পূরণ, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দারিদ্র্য বিমোচনের পাশাপাশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে মৎস্য সম্পদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। বর্তমান সরকারের নিরন্তর প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ আজ মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে বিশ্বে চতুর্থ।
তিনি বলেন,উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত রাখতে আধুনিক ও পরিকল্পিত উপায়ে মৎস্যচাষ, আহরণ ও পরিচর্যা, মৎস্য সম্পদের যথাযথ সংরক্ষণ ও স্বাস্থ্যসম্মত সরবরাহ ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা অত্যন্ত জরুরি। বিশেষ করে দেশীয় মাছের প্রজাতি রক্ষায় বিভিন্ন নদ-নদী ও জলাশয় গুলোতে প্রজনন মৌসুমে মৎস্য আহরণ নিষিদ্ধ করা, মাছের অভয়ারণ্য ঘোষণাসহ সময়ে সময়ে সরকারের নেয়া পদক্ষেপ গুলোর যথাযথ বাস্তবায়নে রাষ্ট্রপতি সকলকে সচেষ্ট থাকার আহ্বান জানান।
তিনি বলেন,বাংলাদেশের বিশাল সমুদ্রসীমা মূল্যবান জলজ সম্পদের আধার। এ জন্য তিনি প্রত্যাশা করেন,ব্লু-ইকোনমির এ সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের সংরক্ষণ ও টেকসই আহরণ নিশ্চিতকরণে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।
রাষ্ট্রপতি বলেন,সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ট বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান একটি সুখী-সমৃদ্ধ সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন। বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার সঙ্গে একাত্ম হয়ে এবারের জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের প্রতিপাদ্য ‘স্বয়ংসম্পূর্ণ মাছে দেশ, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ’ যথার্থ ও তাৎপর্যপূর্ণ হয়েছে বলে তিনি মনে করেন।
আবদুল হামিদ বলেন,‘এ দেশকে একটি উন্নত দেশে রূপান্তরে মৎস্য খাতের সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতে সংশ্লিষ্ট সকলে আন্তরিকতা, নিষ্ঠা ও দক্ষতার সঙ্গে কাজ করবেন এটাই আমার প্রত্যাশা।