মেলার পঞ্চম দিনে ২৯০ কোটি টাকার রাজস্ব

নিজস্ব প্রতিবেদক : সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার পঞ্চম দিন ছিল শনিবার। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় আয়কর মেলা প্রাঙ্গণ কানায় কানায় পূর্ণ ছিল করদাতা এবং সেবা গ্রহীতাসহ সব পর্যায়ের মানুষে। পঞ্চম দিন রাজস্ব হয়েছে ২৯০ কোটি ৫২ লাখ ৯৩ হাজার ৭০৮ টাকা।

মেলায় সকাল থেকেই উৎসবের আমেজ বিরাজ করছিল। করদাতাদের ব্যাপক সাড়ার মধ্য দিয়ে আজ দেশের ৮টি বিভাগ, ৫২টি জেলা এবং ১৩ টি উপজেলাসহ মোট ৭৩টি স্পটে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রাজধানী ঢাকার মতোই মেলার পঞ্চম দিন সারাদেশে করদাতারা স্বতঃস্ফূর্তভাবে কর প্রদান ও সেবা গ্রহণ করেছেন। বিশেষ করে পেশাজীবী, চাকরিজীবী, তরুণ করদাতা, নারী করদাতা, অনলাইন রিটার্ন দাখিল বুথে করদাতাদের ছিল সরব উপস্থিতি।

প্রতিদিন মেলা সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। মেলায় আয়কর রিটার্ন দাখিল, ই-টিআইন গ্রহণ (নতুন ও পুরাতন), ই-পেমেন্ট, ই-ফাইলিং, ই-পেমেন্টের ব্যবস্থা রয়েছে। মেলায় আসা মুক্তিযোদ্ধা, নারী, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ করদাতাদের জন্য রয়েছে আলাদা বুথ।

মেলায় করদাতাদের যাতায়াতের সুবিধার জন্য রাজধানীর টিএসসি, রামপুরা, বেইলি রোড, মতিঝিল, মিরপুর ও উত্তরা থেকে ১৫টি শাটল বাস নিয়োজিত রয়েছে।

অডিও ভিজ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ কার্যক্রম উদ্বোধন

চলমান সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলায় অডিও ভিজ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। মেলা প্রাঙ্গণে দুপুরে কর শিক্ষণ ফোরামে ‘অডিও ভিজ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ কার্যক্রম’উদ্বোধন করেন আয়কর মেলা ২০১৮ এর সমন্বয়ক ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) জিয়া উদ্দিন মাহমুদ।

অডিও ভিজ্যুয়াল পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ কার্যক্রম এটি এনবিআরের নতুন উদ্ভাবনীমূলক উদ্যোগ। এর মাধ্যমে সম্মানিত করদাতারা আধুনিক পদ্ধতিতে কর শিক্ষণ কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড নির্মিত চারটি ডকু ড্রামায় রিটার্ন দাখিলের সব ধরনের তথ্য সন্নিবেশিত হয়েছে। নাটিকার মতো এ ডকুড্রামা/ ভিডিওগুলো দেখলে করদাতারা স্ব স্ব রিটার্ন তৈরি করতে পারবেন। এ ডকুড্রামা/ভিডিও টিউটোরিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে আপলোড করা হবে।

২০১০ সাল থেকে শুরু হওয়া আয়কর মেলার পরিধি এবং মেলার মাধ্যমে আয়কর বিভাগের সেবার পরিসর উত্তরোত্তর বাড়ছে। ২০১৮ সালে দেশব্যাপী সর্বাধিক সংখ্যক ভেন্যুতে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ১৩-১৯ নভেম্বর রাজধানী ঢাকাসহ সব বিভাগীয় শহরে ৭ দিন, ৫৬টি জেলা শহরে ৪ দিন, ৩২টি উপজেলায় ২ দিন এবং ৭০টি উপজেলায় দিনব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। কর আহরণের পাশাপাশি সামাজিক ন্যায় বিচার ও সমতা নিশ্চত করাই কর বিভাগের প্রধান কাজ। এ ধারাবাহিকতায় ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’স্লোগানকে সামনে রেখে এ বছর আয়কর মেলার প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে ‘আয়কর প্রবৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক ন্যায় বিচার ও ধারাবাহিক উন্নয়ন নিশ্চিতকরণ।