মেলানিয়ার চাপে পদ ছাড়লেন ট্রাম্পের উপদেষ্টা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় উপনিরাপত্তা উপদেষ্টা মিরা রিকার্ডেল পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন। সম্প্রতি আফ্রিকা সফরে গিয়ে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের সঙ্গে বিতর্কে জড়ান মিরা রিকার্ডেল। গত বুধবার তাকে তার পদ থেকে সরানো হয় বলে খবর বিবিসির।

হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র সারা স্যান্ডার্স এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘হোয়াইট হাউস ছেড়ে এই প্রশাসনেরই নতুন একটি ভূমিকায় থেকে রিকার্ডেল প্রেসিডেন্টকে সমর্থন দেওয়া অব্যাহত রাখবেন।’ তবে রিকার্ডেলের নতুন পদ কী হচ্ছে তা বিস্তারিত জানাননি স্যান্ডার্স।

মার্কিন প্রশাসনের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, অক্টোবরে ফার্স্ট লেডির আফ্রিকা সফরের প্রক্কালে সফরের আলাপালোচনা ও সফরে সরকারি রসদের ব্যবহার নিয়ে মেলানিয়া ট্রাম্প ও তার কর্মীদের সঙ্গে রিকার্ডেল বচসায় জড়িয়ে পড়েছিলেন।

রিকার্ডেল তার স্বামীর সঙ্গে কাজ করার সম্মান পাওয়ার যোগ্য না, ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার এমন দাবির পর এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

ট্রাম্পের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সাবেক কর্মকর্তা রিকার্ডেলকে নিজের সহকারী হিসেবে কাজ করার জন্য নিয়ে এসেছিলেন।

আরও কয়েকটি সূত্র জানায়, হোয়াইট হাউসে কর্মীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করার দুর্নামও তৈরি হয়েছিল রিকার্ডেলের।

গত সপ্তাহের কংগ্রেস নির্বাচনে প্রতিনিধি পরিষদের কর্তৃত্ব হারানোর পর হোয়াইট হাউসে শীর্ষ পদগুলোতে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প রদবদল আনছেন- মার্কিন গণমাধ্যমে এমন প্রতিবেদনের প্রকাশিত হওয়ার পরপরই এই পদক্ষেপ নেওয়া হলো।

গত বুধবার রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ট্রাম্পের মন্ত্রিসভার তিন জ্যেষ্ঠ সদস্য- চিফ অব স্টাফ জন কেলি, হোমাল্যান্ড সিকিউরিটি মন্ত্রী ক্রিয়াস্টিন নিয়েলসেন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রায়ান জিঙ্ক শিগগিরই পদত্যাগ করতে পারেন।