মুুন্সীগঞ্জে বিএনপি’র নেতাকে কুপিয়ে হত্যা : গ্রেফতার ৩

মুন্সীগঞ্জ জেলা সংবাদদাতা : মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে বিএনপি’র দুই নেতাকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। হতভাগ্য নিহতরা হলেন বেতকা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাবেক সভাপতি শাহ আলম(৫৫) এবং একই ওয়ার্ডের বর্তমান সভাপতি মো: আলী হোসন(৫৮)। ৯ই সেপ্টেম্বর শনিবার রাত সাড়ে ৮ টায় টঙ্গীবাড়ী উপজেলার বেতকা ইউনিয়নের কান্দাপাড়া গ্রামে এই নৃশংস ঘটনা ঘটে।
টঙ্গীবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইয়ারদৌস হাসান জানান, জমিজমা নিয়ে কান্দাপাড়া গ্রামের রাসেল মোল্লা তার ভাই সোহেল মোল্লা নাছিম ও আওলাদ গংয়ের সাথে আলী হোসেন গংয়ের বিরোধ চলে আসছিলো। শনিবার রাত ৮টার দিকে কান্দাপাড়া গ্রামের রাস্তায় রাসেল ও সোহেলের নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী আলী হোসেন ও শাহ আলমের সঙ্গে তর্ক-বিতর্কের এক পর্যায়ে হামলা চালায়। এ সময় তাদের এলোপাতাড়ি ধরালো অস্ত্রের আঘাতে ঘটনাস্থলেই আলী হোসেন খুন হন, মারাত্মক জখম অবস্থায় শাহ আলমকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে গতকাল ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। নিহতদের মরদেহ লাশ ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত শাহ আলমের স্ত্রী রাশেদা বেগম বাদী হয়ে গতকাল সকালে ১৪ জনকে আসামি করে টঙ্গীবাড়ী থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
টঙ্গীবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আরো জানান, এ ঘটনায় ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার স্বার্থে তাদের নাম পরিচয় এই মূহুর্তে প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না।তবে অন্যান্য আসামীদের ধরতে অভিযান চলছে। এদিকে মর্মস্পর্শি, হৃদয় বিদারক এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
জেলা বিএনপি সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী আ: হাই বর্বরোচিত এ হামলায় ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতা-কর্মীরা জড়িত বলে জানান । তিনি এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান এবং দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।