মুসলিম দেশগুলোর বিরোধ মীমাংসায় আলোচনার ওপর প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বারোপ

ঢাকা, ৪ অক্টোবর, ২০১৮ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাতৃপ্রতীম মুসলিম দেশগুলোর পরস্পরের মধ্যে বিবদমান দ্বন্দ্ব-সংঘাত নিরসনে সংলাপের ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
ইরানের বিদায়ী রাষ্ট্রদূত ড. আব্বাস ভাইজি দেহনভী আজ সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে গণভবণে সৌজন্য সাক্ষাতে গেলে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বৈঠকের পরে সাংবাদিকদের ব্রিফিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে উদ্বৃত করে বলেন-প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে বিশেষ করে ওআইসি সদস্য দেশগুলোর বিবদমান সমস্যাগুলোকে আলাপ- আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে রোহিঙ্গা সমস্যা, কক্সবাজারে তাদের পুণর্বাসন প্রসঙ্গ এবং তাদের মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সফল প্রত্যাবাসন বিষয়ে তাঁর সরকারের পদক্ষেপ সমূহ তুলে ধরেন।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের জীবনধারণের জন্য উন্নত পরিবেশ নিশ্চিত করতে উপকূলীয় দ্বীপ ভাষানচরে তাদের স্থানান্তরে তাঁর সরকারের উদ্যোগেরও উল্লেখ করেন।
এর উত্তরে ইরানের রাষ্ট্রদূত বলেন, ইরানও চায় মিয়ানমারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করতে। যাতে করে তাদের নাগরিকদের নেপিদো বাংলাদেশ থেকে ফেরত নিয়ে যায়।

ইরানের রাষ্ট্রদূত বলেন, তাঁর দেশও বাংলাদেশে অবস্থানরত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সাহায্যার্থে তহবিল সংগ্রহ করছে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো.নজিবুর রহমান এবং সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।