মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কয়েকশ অ্যাকাউন্ট বন্ধ করল ফেসবুক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কয়েকশ পেজ এবং অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিয়েছে ফেসবুক। সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ঘৃণামূলক বক্তব্য ও মিথ্যা তথ্য ছড়ানোয় মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পেজ ও অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

গত বছর রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর নৃশংসতা চালায় মিয়ানমার সেনাবাহিনী। সে সময় এসব পেজ এবং অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে ঘৃণামূলক বক্তব্য ছড়ানো হয়। গত বছরের আগস্টে অভিযানের নাম করে রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বর নির্যাতন, তাদের বাড়ি-ঘর আগুনে পুড়িয়ে দেয়া এবং এলোপাতাড়ি গুলি করে রোহিঙ্গাদের হত্যা করা হয়। এতে সাত লাখ ২০ হাজার রোহিঙ্গা পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়।

গত মার্চে মানবাধিকার সংস্থাগুলো জানিয়েছে, ফেসবুক ব্যবহার করে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ঘৃণামূলক বক্তব্য দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। বুধবার এক বিবৃতিতে ফেসবুকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, মিয়ানমারে ৪২৫টি পেজ, ১৭টি গ্রুপ, ১৩৫টি অ্যাকাউন্ট এবং ১৫টি ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

এগুলো স্বতন্ত্র খবর, বিনোদন, রূপচর্চা ও লাইফস্টাইলের আদলে পরিচালিত হচ্ছিল। কিন্তু বাস্তবে এসব পেজের সঙ্গে সেনাবাহিনীর যোগসাজশ রয়েছে অথবা ইতোপূর্বে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে এমন পেজের নতুন সংস্করণ হিসেবে কাজ চলছিল।

এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো মিয়ানমার থেকে পরিচালিত বিভিন্ন পেজ ও অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল ফেসবুক। এর আগে গত আগস্ট ও অক্টোবরেও রোহিঙ্গাবিরোধী বিদ্বেষ ছড়ানোর দায়ে অনেক অ্যাকাউন্ট ও পেজ ডিলিট করে দেওয়া হয়েছিল। এর মধ্যে মিয়ানমার সেনাপ্রধান জেনারেল মিন অং হ্লাং ছাড়াও আরও ২০ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে নিষিদ্ধ করা হয়।