মিতু হত্যাকান্ড অস্ত্র উদ্ধার মামলা ২ মে পর্যন্ত

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : সাবেক পুলিশ সুপার বাবুল আক্তারের স্ত্রী মাহমুদা খানম মিতু হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধারের মামলার কার্যক্রম আগামী ২ মে পর্যন্ত মূলতবি করেছেন আদালত। সোমবার মামলার বাদী নগর গোয়েন্দা পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার মো. কামরুজ্জামানের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হওয়ায় মামলার কার্যক্রম মুলতবি করেন চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ মো. শাহে নূর।সোমবার দুই আসামি এহতেশামুল হক ভোলা ও রিকশা চালক মনির হোসেনকে আদালতে হাজির করা হয়। চট্টগ্রাম মহানগর পিপি ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, মামলার বাদীকে গত ১৮ জানুয়ারি ও সোমবার (২৭ মার্চ) দুই দফা সাক্ষ্যগ্রহন শেষে ২ মে পর্যন্ত মামলার কার্যক্রম মুলতবি করেন আদালত। এর আগে বাদীকে জেরা করেন আসামির আইনজীবীরা। এছাড়া আসামি ভোলার পক্ষে জামিনের আবেদন করা হয়। শুনানির পর আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।গত বছরের ৫ জুন নগরীর জিইসি মোড় এলাকায় গুলি ও ছুরিকা ঘাতে নিহত হন মাহমুদা খানম মিতু। একই বছরের ২৭ জুন নগরীর বাকলিয়া এলাকা থেকে ভোলা এবং পরদিন মনিরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর মিতু হত্যায় ব্যবহৃত অস্ত্র সরবরাহ করার কথা স্বীকার করে তারা। তাদের বিরুদ্ধে গত বছরের ২৮ জুলাই আদালতে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন বাকলিয়া থানার এসআই ও তদন্তকারী কর্মকর্তা মহিম উদ্দিন। গত বছরের ২২ নভেম্বর মামলার দুই আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দিয়েছিলেন আদালত।