মা ও ভাগ্নিকে খুন করে, আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিনিধি : ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে শিশির নামে এক যুবক তার মা ও ভাগ্নিকে হত্যার পর নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত যুবককে আটক করেছে পুলিশ।মঙ্গলবার ভোররাতে ঘটনাটি ঘটেছে বোয়ালমারীর পৌর এলাকার কামারগ্রামে।
স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর শেখ আজিজুর রহমান জানান, স্থানীয় বাসিন্দা বিভতু ভূষান সাহার বাড়িতে ভাড়াটিয়া থাকেন শিশির ও তার পরিবার। শিশির বেঙ্গল বিস্কুট কোম্পানিতে চাকরি করেন। তিনি ৬০ বছর বয়সী মা ও তিন বছর বয়সী ভাগ্নি শ্রাবণীকে হত্যা করেন বলে নিজেই জানিয়েছেন।
কাউন্সিল বলেন, সকাল সাড়ে নয়টার দিকে খবর পেয়ে আমি ওই বাড়িতে গিয়ে দেখি গলাকাটা অবস্থায় দুইটি লাশ রয়েছে, পাশে শিশির আহত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন।
আজিজুর রহমান বলেন, শিশির তাকে জানিয়েছে গভীর রাতে মা ও ভাগ্নিকে ঘুমের ইনজেকশন দেন শিশির। পরে গলা চেপে হত্যা করেন। এরপর দুইজনকেই ধারালো অস্ত্র দিয়ে গলা কেটে নিজে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন এই যুবক।
বোয়ালমারী থানার ওসি (তদন্ত) মো. শহিদুল ইসলাম ঢাকাটাইমসকে বলেন, হত্যার খবর পেয়ে আমিসহ থানার অন্যান্য কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যাই।
ওসি জানান, শিশির ৬/৭ মাস আগে স্থানীয় বিভুত সাহার বাড়িতে ভাড়ায় উঠেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মনে হয়েছে শিশির হতাশাগ্রস্থ হয়ে এমনটি ঘটিয়েছেন। তাদের বাড়ি ঝিনাইদাহে বলে জানা গেছে।
এই ঘটনায় ঘাতক শিশিরকে আটক করা হয়েছে। লাশ দুইটি ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়েছে।