মায়ের বার্তা শুনে কেঁদেছিলেন সঞ্জয়

বিনোদন ডেস্ক : বলিউডের প্রভাবশালী অভিনেতাদের অন্যতম সঞ্জয় দত্ত। হিন্দি ছবির জগতে যে কজন অভিনেতা আন্ডারওয়ার্ল্ড মাফিয়াদের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছিলেন তাদের মধ্যেও অন্যতম মুন্না ভাই। এছাড়া একাধিক অভিনেত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া, বিভিন্ন মামলায় একাধিক বার জেল খাটা, নেশায় বুদ হয়ে থাকা ইত্যাদি আরও অনেক তিক্ত অভিজ্ঞতা রয়েছে সঞ্জয়ের।

অন্যান্য বিতর্কিত কাজের পাশাপাশি ছেলের ড্রাগে ডুবে থাকার বিষয়টি নিয়ে সব সময় চিন্তায় থাকতেন সঞ্জয় দত্তের মা নার্গিস। নেশা ছাড়িয়ে ছেলেকে কীভাবে জীবনের মূল স্রোতে ফেরাবেন, সেটা কিছুতেই মাথায় আসছিল না তার। তাই উপায় না দেখে মনের কথা ক্যাসেটে রেকর্ড করে রেখেছিলেন। সঞ্জয়ের মা নার্গিস তখন ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে আমেরিকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

১৯৮১ সালের ৩ মে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় সঞ্জয়ের মায়ের। আর মায়ের রেকর্ড করা সেই বার্তা সঞ্জয়ের হাতে কখন এসেছিল জানেন? নার্গিসের মৃত্যুর পর। তাই মায়ের রেকর্ড করা সেই বার্তা শুনে চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি এক সময়কার আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত। অঝরে কেঁদেছিলেন তিনি। দীর্ঘ ২৮ বছর পর সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে এমনই চমকপ্রদ তথ্য।
লুকোনো এ তথ্য সামনে এনেছেন বলিউডের নামি পরিচালক রাজকুমার হিরানি। নায়ক সঞ্জয় দত্তের জীবনের খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে অনুমতি সাপেক্ষে একটি বায়োপিক নির্মাণ করেছেন ব্যবসায়িকভাবে সফল এ পরিচালক। ‘সঞ্জু’ নামের সেই বায়োপিকে সঞ্জয় দত্তের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন রণবীর কাপুর। এই বায়োপিকেই ছেলে সঞ্জয়ের জন্য মা নার্গিসের রেকর্ড করা সেই বার্তাটির বিষয় তুলে ধরেছেন হিরানি।

‘সঞ্জু’ ছবিতে নায়ক সঞ্জয় দত্তের অপরাধ জগতের সঙ্গে জড়িয়ে পড়া এবং মাদক নেয়া থেকে শুরু করে একাধিক নারীসঙ্গ- প্রায় সব প্রসঙ্গই তুলে এনেছেন পরিচালক রাজকুমার হিরানি। আগামী ২৯ জুন ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে।

এই ছবিতে সঞ্জয়ের মা নার্গিসের ভূমিকায় রয়েছেন অভিনেত্রী মনিষা কৈরালা। বাবা সুনীল দত্তের চরিত্রে আছেন পরেশ রাওয়াল। এছাড়া তার একাধিক নারী বান্ধবীদের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন সোনম কাপুর, দিয়া মির্জা ও কারিশমা তন্নাসহ অনেকে।

Inline
Inline