মালয়েশিয়ার ছয় হলে ‘ঢাকা অ্যাটাক’

দেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’। গত বছরের ৬ অক্টোবর বাংলাদেশের ১২৩টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায় দীপংকর দীপন পরিচালিত ছবিটি। মুক্তির পরই কাঁপিয়ে দেয় সবকটি প্রেক্ষাগৃহ। ছবিটি দেখতে প্রেক্ষাগৃহে যান সাধারণ দর্শক থেকে শুরু করে বাংলাদেশ পুলিশের বড় বড় কর্মকর্তাসহ কয়েকজন সংসদ সদস্যও।

প্রেক্ষাগৃহ থেকে বের হয়ে সকলেই ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করেন। পাঁচ কোটি টাকা বাজেটের ছবিটি শুধু বাংলাদেশ থেকেই আয় করে নেয় প্রায় ১০ কোটি টাকা। দেশব্যাপী ব্যাপক সাড়া পাওয়ায় ২৭ অক্টোবর ইউরোপসহ বিশ্বের কয়েকটি দেশে মুক্তি দেয়া হয় বহুল আলোচিত ও প্রশংসিত ‘ঢাকা অ্যাটাক’।

সেই থেকে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির বিশ্ব সফর শুরু। গত কয়েক মাসে ছবিটি মুক্তি পেয়েছে আমেরিকা, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার এবং ওমানে। সেই সফরের ধারাবাহিকতায় ‘ঢাকা অ্যাটাক’ এবার মুক্তি পেল মালয়েশিয়াতে। ৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার দেশটির ছয়টি সিনেমা হলে মুক্তি পেয়েছে ছবিটি।

সিনেমা হলগুলো হল- মালয়েশিয়ার টিভিজি সিনেমাস জয়া শপিং সেন্টার, টিভিজি সিনেমাস কেএলসিসি, টিভিজি সিনেমাস রাওয়াং, টিভিজি সিনেমাস কপেং, টিভিজি সিনেমাস সানওয়ে পুত্রা, টিভিজি সিনেমাস শামেলেনি।

আলোচিত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবির কাহিনি লিখেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সানী সানোয়ার। এটি যৌথভাবে প্রযোজনা করেছে থ্রি হুইলারস ফিল্মস, স্প্ল্যাশ মাল্টিমিডিয়া ও কিউ-প্লেক্স কমিউনিকেশন। পরিবেশনা করে টাইগার মিডিয়া। ২০১৭ সালের সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে এটিএন বাংলা পারফর্ম্যান্স এওয়ার্ড অর্জন করে ছবিটি।
ঢাকায় একাধিক খুন ও বোমা বিস্ফোরণের বিরুদ্ধে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের অবস্থান চিত্রিত হয়েছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ছবিটিতে। এর প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন আরিফিন শুভ ও মাহিয়া মাহি। এছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ভূমিকায় সৈয়দ হাসান ইমাম, পুলিশ প্রধানের(আজিপি) ভূমিকায় নায়ক আলমগীর এবং ঢাকার পুলিশ কমিশনারের ভূমিকায় দেখা যায় অভিনেতা আফজাল হোসেনকে।

ছবিতে আরও আছেন লায়লা হাসান, তাসকিন রহমান, এ বি এম সুমন, শতাব্দী ওয়াদুদ, নওশাবা, শিপন মিত্র প্রমুখ। ছবিটির শুটিং হয় ঢাকা, চট্টগ্রাম এবং ভারতের মুম্বাইয়ে। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ এর মাধ্যমেই কলকাতা ও বলিউডের বিখ্যাত সঙ্গীতশিল্পী অরিজিৎ সিং প্রথম কোনো বাংলাদেশি ছবির গানে কণ্ঠ দেন।

Inline
Inline