মামলা থেকে অব্যাহতি পেলেন চবি উপাচার্য

নিঃশর্ত মাফ চেয়ে মানহানির মামলা থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মামলার বাদী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক গাজী সালেহ্ উদ্দিন মামলাটি তুলে নেন। এছাড়া গত সোমবার চবি উপাচার্য চট্টগ্রাম ক্লাবে আনুষ্ঠানিক ভাবে মামলার বাদী অধ্যাপক গাজী সালেহ্ উদ্দিন এর সঙ্গে আপোশনামা করেন।
অধ্যাপক গাজী সালেহ্ উদ্দিন বলেন, গত সোমবার চট্টগ্রাম ক্লাবে আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আমাকে যে কথাগুলো বলেছিল সেগুলো অনিচ্ছকৃত ছিল বলে স্বীকার করে নেন। কথাগুলোর বলার জন্য তিনি অনুতপ্ত বলে দুঃখ প্রকাশ করেন। তাই আজ মামলা তুলে নিয়েছি।
তিনি আরও বলেন, বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অনেকে মন্তব্য থাকে। আমি সেই মুক্তিযোদ্ধাদের হয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছি। আমি তার ফলাফল পেয়েছি। আমি আশা করি এরপর কেউ মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে কটাক্ষ উক্তি করবে না।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, ঠাট্টা ছলে একটি কথা বলেছিলাম আমি। সেটাকে গাজী সালাউদ্দিন স্যার মনে করেছিলেন তিনি যে মুক্তিযোদ্ধা তা নিয়ে আমি সংশয় প্রকাশ করেছি। উনি যেহেতু মনে কষ্ট পেয়েছেন তাই এ ব্যাপারে আমি দুঃখিত। ওনার মনোকষ্ট লাঘবের জন্য বিষয়টিকে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখার জন্য অনুরোধ করেছি। উনি আমার অনুরোধ রেখেছেন।
প্রসঙ্গত, গত ১২ ডিসেম্বর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন সমাজতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক গাজী সালেহ্ উদ্দিন। তিনি মহানগর হাকিম আবু সালেহ মোহাম্মদ নোমানের আদালতে এ মামলা করেন।