মহানগরী পুলিশ পাচ্ছে গাজীপুর ও রংপুর

আশীষ কুমার অঞ্জন : ‘গাজীপুর মহানগরী পুলিশ আইন, ২০১৭’ এবং ‘রংপুর মহানগরী পুলিশ আইন, ২০১৭’ নামে দু’টি আইনের খসড়ার চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৈঠক শেষে দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, বরিশাল এবং সিলেট মহানগরী পুলিশ আইনের মতোই গতানুগতিকভাবে করা হয়েছে।

বর্তমান সরকারের মেয়াদে ২০১৩ সালের ২৮ জুন রংপুর পৌরসভাকে দেশের দশম সিটি করপোরেশন এবং ২০১৩ সালের ১৬ জানুয়ারি গাজীপুর পৌরসভাকে ১১তম সিটি করপোরেশন হিসেবে গেজেট প্রকাশ করে সরকার।

২০১৫ সালের ডিসেম্বরে মন্ত্রিসভার বৈঠকে দুই সিটি করপোরেশনে মহানগর পুলিশ গঠনে আইনের নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়। প্রস্তাবিত আইনের খসড়ায় গাজীপুরের জয়দেবপুর, টঙ্গী ও কালিয়াকৈর থানার মৌচাক ও সফিপুর ইউপি এলাকা নিয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ (জিএমপি) গঠন করার কথা বলা হয়েছে। এছাড়া সালনা, জয়দেবপুর, চৌরাস্তা, কোনাবাড়ী, মীরেরবাজার, বোর্ডবাজার, মৌচাক, কাশিমপুর, টঙ্গী পূর্ব ও টঙ্গী পশ্চিম—এই ১০টি এলাকা নিয়ে জিএমপির ১০টি থানা করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

অন্যদিকে, রংপুর সিটি করপোরেশন এলাকায় ছয়টি থানা নিয়ে রংপুর মহানগর পুলিশ ইউনিট করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ছয়টি থানা হলো কোতোয়ালি, হাজীরহাট, পরশুরাম, তাজহাট, মাহীগঞ্জ ও হারাগাছ।

আজকের মন্ত্রিসভার বৈঠকে বাংলাদেশ ও ভুটানের মধ্যে স্বাক্ষরিত দ্বৈত করারোপণ পরিহার ও রাজস্ব ফাঁকি রোধ সংক্রান্ত চুক্তি অনুসমর্থনের প্রস্তাব অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।