ভোলায় ৫০ দিনব্যাপী লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

ভোলা প্রতিনিধি: “দুর্বার, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে আইসিটি হবে হতিয়ার’’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ভোলায় ৫০ দিনব্যাপী আইসিটি (ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলোজি) বিষয়ক লানিং এন্ড আনিং প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় জেলা প্রশাসকের মিলনায়তনে এই প্রশিক্ষণের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ভোলা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সুব্রত কুমার সিকদার।
ভোলা সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মৃধা মো: মোজাহিদুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, ভোলা সদর উপজেলা এসিল্যান্ড (ভূমি) মো: রুহুল আমিন, জেলা প্রশাসক এর আইসিটি (ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন টেকনোলোজি) সহকারি প্রোগ্রামার মো: মাকসুদুর রহমান।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কেপাসেটি বিল্ডিং সার্ভিস গ্রুপ এর আইসিটি টেনিং কো- অর্ডিনেটোর নাজমুল হাসান প্রমুখ।
উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বর্তমান সরকার তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে যুব সমাজের উন্নয়নে কাজ করে চলেছে। যুবকরা তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে স্বাবলম্বী হচ্ছে। বিশ্বায়নের এই যুগে যুবকরা চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। যুব সমাজকে উন্নত করার লক্ষ্যে লার্নি এন্ড আর্নিং প্রকল্প সরকারের একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ।
আইসিটি মন্ত্রণালয়ের ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের আওতায় লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রোগ্রাম এর অংশ হিসাবে ৫০ দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণে ভোলা জেলায় প্রথম ব্যাচে ৮০জন প্রশিক্ষণার্থীকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। চুড়ান্তভাবে বাছাইকৃত এসব প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতিদিন চার ঘণ্টা করে মোট ২০০ ঘণ্টা প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। পরবর্তিতে আরো ১০০ জনকে এই প্রশিক্ষন দেয়া হবে বলে জানানো হয়।