ভোলায় প্রতিপক্ষের হয়রানীর প্রতিবাদে ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবী

শাহরিয়ার জিলন, ভোলা সংবাদদাতা : জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানীর প্রতিবাদে ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভোলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের দরিদ্র কৃষক মোঃ ঝিলনের পরিবার। সোমবার (৭ মে) দুপুরে ভোলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নির্যাতিত কৃষক মো: ঝিলন।
সদর উপজেলার ভেদুরিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের কৃষক ঝিলন লিখিত বক্তব্যে জানান, গত ২২ এপ্রিল সকালে নিজ বসতবাড়ির পুকুরের পানিতে ময়লা ফেলাকে কেন্দ্র করে পাশের বাড়ির মিলনের সাথে তার তর্কবিতর্ক হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ওইদিন ১২টার দিকে মিলনের নেতৃত্বে বাবুল, গিয়াস উদ্দিন, মহিউদ্দিন, সোহেলসহ অজ্ঞাত কয়েকজন মিলে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর করে। গিয়াস উদ্দিন বাহিনী ঘরে হামলা চালিয়ে স্বর্ণের চেইন, নগদ টাকা ও মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। সন্ত্রাসীদের হামলায় ঝিলনের স্ত্রী মিনারা, মেয়ে ঝর্ণা, ছেলে হাসনাইন গুরুতর আহত হয়। সন্ত্রাসীদের হাত থেকে ঝিলনের পরিবারকে উদ্ধার করার জন্য তার ভাই কবির ও স্ত্রী আমিরুননেসা এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা তাদেরকেও এলোপাতারী মারধর করে। পরে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় ওইদিন ঝিলনের পরিবার ভোলা সদর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলা দায়ের করার পর মিলন ও গিয়াস উদ্দিন বাহিনী গা ডাকা দেয়। ঝিলনের পরিবারকে হয়রানী করার জন্য মিলন মিথ্যা ঘটনা সাজিয়ে ঝিলনের পরিবারের বিরুদ্ধে পাল্টা আরেকটি মামলা দায়ের করে। মিথ্যা মামলা দিয়ে ঝিলনের পরিবারকে বিভিন্নভাবে হয়রানী করছে প্রতিপক্ষ মিলন। কিন্তু ঝিলনের মামলার পরেও পুলিশ আসামীদেরকে গ্রেফতার করতে পারেনি বলেও ঝিলন অভিযোগ করে। লিখিত অভিযোগে ঝিলন আরও জানান, থানায় মামলা করার পর থেকে মিলনের নেতৃত্বে গিয়াস উদ্দিন বাহিনী ঝিলনের পরিবারকে হুমকি ধামকি দিয়ে বেড়াচ্ছে এবং বাড়ি থেকে উচ্ছেদের পায়তারা চালাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে প্রতিপক্ষের হামলায় নির্যাতিত ঝিলন ও তার পরিবার মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির প্রতিবাদ ও আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।

Inline
Inline