ভোলায় কমিউনিটি পুলিশিং ও মাদক বিরোধী সভা অনুষ্ঠিত

এম শাহরিয়ার জিলন, ভোলা: “পুলিশি জনতা-জনতাই পুলিশ” এই প্রতিপাদ্য বিষয়কে সামনে রেখে ভোলার রাজাপুর ইউনিয়নে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, চাদাঁবাজি, মাদক, বাল্যবিবাহ, ইভটিজিং, যৌতুক ও সাইবার ক্রাইম প্রতিরোধে কমিউনিটি পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত হয়। রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ভোলা সদর মডেল থানা ও রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদের আয়োজনে রাজাপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ৭জন মাদক সেবী পুলিশের কাছে আত্মসর্ম্পন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।
সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ভোলা পুলিশ সুপার মো: মোকতার হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো: রিয়াজুল কবির, ভোলা সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মীর খাইরুল কবীর। অনুষ্ঠানের সভাপত্বিত করেন রাজাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: মিজানুর রহমান খান।
আরো বক্তব্য প্রদান করেন ভোলা থানার ওসি (তদন্ত) মো: জাকির হোসেন, রাজাপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল মান্নান, সাংগঠনিক সম্পাদক মো: ছাদেক চৌকিদার, ওয়ার্ড সভাপতি নজরুল মাস্টার, ইউপি সদস্য হেলাল উদ্দিন, সমাজ সেবক আব্দুল কাদির ফকির প্রমুখ।
এসময় বক্তারা বলেন, ইউনিয়নকে শান্তিপূর্ন রাখতে হলে কোন ধরনের মাদক, ইভটিজিং, বাল্যবিয়ে, চাঁদাবাজি হতে দেয়া যাবেনা। যারা এই ধরনের অপরাধ মূলক কর্মকান্ড করবে তাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
বক্তারা আরো বলেন, এলাকার সার্বিক নিরাপত্তায় রক্ষায় কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রমের কোন বিকল্প নেই। মাদক, জঙ্গিবাদ এর আগ্রাসন প্রতিরোধে ও অপরাধে দমনে পুলিশকে সহযোগিতা করার জন্য সচেতন জনসাধারনের দায়িত্বশীল ভূমিকা পালনের আহবান জানান।
অনুষ্ঠান শেষে ৭ জন মাদক সেবী পুলিশের কাছে আত্মসমর্পন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসা সহ কাউকে আর মাদক সেবন করতেও বিক্রি করতে দিবেনা বলে প্রতিশ্রুতি প্রদান করে শপথ করেন। পরে পুলিশ সুপার মো: মোকতার হোসেন তাদের ফুল দিয়ে বরন করে নেয়।