ভোলায় অভিভাবক সমাবেশ ও স্কুল ব্যাগ বিতরণ

শাহরিয়ার জিলন, ভোলা সংবাদদাতা : “দুর্নীতি প্রতিরোধে সুশিক্ষার বিকল্প নেই” এ স্লোগানকে সামনে রেখে ভোলার উত্তরের স্বনামধন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান “টবগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়” অভিভাবক সমাবেশ ও ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার (৯ মে) দুপুরে বাপ্তা ইউনিয়নে বিদ্যালয় মিলনায়তনে এই অভিভাবক সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোঃ শাহনেওয়াজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ আব্দুল হালিম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সাফিন মাহমুদ, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ মোশারেফ হোসেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ কামাল হোসেন, বাপ্তা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইয়ানুর রহমান বিপ্লব মোল্লা প্রমূখ।
শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইসমাইল। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সহকারী প্রধান শিক্ষক অসিম আচার্য্য। এসময় বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, ইউপি সদস্য, অভিভাবকগণ উপস্থিত ছিলেন।
এসময় বাপ্তা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইয়ানুর রহমান বিপ্লবের সহযোগীতায় এলজিএসপি-৩ এর আওতায় টবগী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাত শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে স্কুল ব্যাগ বিতরণ করা হয়। স্কুল ব্যাগ পেয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আনন্দিত।


সভায় বক্তারা বলেন, শিক্ষা ছাড়া কোন জাতির উন্নতি হতে পারে না। যে জাতি যতো শিক্ষিত, সে জাতি ততো উন্নত। তাই আমাদের ছেলে মেয়েদেরকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে মানুষ হিসেবে তৈরী করতে হবে। ছাত্র-ছাত্রীদের সুশিক্ষিত করার জন্য অভিভাবকের ভূমিকা অপরিসীম। যাতে কোন শিক্ষার্থী ঝড়ে না পড়ে সেজন্য বর্তমান সরকার বিনামূল্যে বই ও উপবৃত্তি দিচ্ছে। শিক্ষার্থীরা নিয়মিত স্কুলে আসে কি না ও ঝড়ে পড়া শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়মুখী করতে শিক্ষকদের বিশেষ ভূমিকা রাখতে হবে।
বক্তারা আরও বলেন, বাল্য বিবাহ আমাদের দেশের দীর্ঘ দিনের একটি সামাজিক অভিশাপ। বাল্য বিবাহের অভিশাপে একজন নারীকে পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে বিকশিত হতে দেয় না। একটি সুস্থ্য জাতি পেতে হলে দরকার একজন শিক্ষিত মা। শিক্ষিত মায়ের দ্বারাই সম্ভব একটি সুস্থ্য জাতি এবং একটি সুস্থ্য সুন্দর প্রজন্ম গড়ে তোলা। কিন্তু বাল্য বিবাহের কারণে আমাদের এই সমাজের বেশিরভাগ মেয়ে শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। আগামী প্রজন্মও সুস্থ ভাবে বেড়ে উঠা ও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠতেও বাল্য বিবাহ বড় একটি বাধা। তাই আপনাদের সন্তানকে পড়ালেখা করিয়ে উপযুক্ত বয়সে বিয়ে দিবেন।
বক্তারা আরও বলেন, আমাদের সমাজে মাদক ব্যাপকভাবে ঢুকে পরেছে। তাই আপনাদের সন্তানরা কোথায় যাচ্ছে, কি করছে এবং কার সাথে মেলামেশা করছে সে ব্যাপারে খোঁজ খবর রাখতে হবে। যাতে শিক্ষার্থীরা কোন মাদক ও অন্য কোন অপরাধে জড়িয়ে না পরে সে বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। অল্প বয়সে শিক্ষার্থীদের হাতে মোবাইল ফোন না দেওয়ার আহ্বান জানান বক্তারা।

Inline
Inline