ভোলার পর্যটন সম্ভাবনা খুবই উজ্জল: রাষ্ট্রপতি

এম শাহরিয়ার জিলন, ভোলা: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ বলেছেন, ভোলার চরফ্যাসন উপজেলায় দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ জ্যাকব টাওয়ারটি পর্যটন শিল্পে এক নতুন দিগন্তের সুচনা করেছে। তিনি আরও বলেন, এ এলাকার পর্যটন সম্ভাবনাও খুব উজ্বল। দেশের পর্যটন শিল্পকে এগিয়ে নিতে সরকারের পাশাপশি বেসরকারি সকল উদ্যোক্তাকে এগিয়ে আসতে হবে। বুধবার বিকেলে ভোলার চরফ্যাসন উপজেলায় ২২৫ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট্য জ্যাকব টাওয়ার উদ্বোধন শেষে এক সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাষ্ট্রপতি এসব কথা বলেছেন।
এ সময় তিনি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ওয়াচ টাওয়ারের মাধ্যমে পর্যটন শিল্পের পর্যাপ্ত বিকাশ ঘটেছে। সেই চিন্তা ধারায় দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সর্বাধুনিক ও সু-উচ্চ জ্যাকব টাওয়ারের মাধ্যমে বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পে এক নতুন ধারা যোগ হয়েছে। এ টাওয়ার দেশী-বিদেশী পর্যটকদের আকৃষ্ট করতে ইতিবাচক অবদান রাখবে।
রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, শিক্ষা একটি জাতির উন্নয়নের অন্যতম প্রধান হাতিয়ার। তাই দেশকে উন্নতি ও অগ্রগতির পথে এগিয়ে নিতে হলে দেশের প্রতিটি নাগরিককে শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। ২১ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার জন্য শিক্ষার গুণগত মান বাড়াতে হবে। সরকার শিক্ষার মান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।

এর আগে দুপুর ২টায় জ্যাকব টাওয়ার উদ্বোধন করেছেন রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ। পরে রাষ্ট্রপতি অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম ডিগ্রি কলেজের নবনির্মিত ভবন, বেগম রহিমা ইসলাম ডিগ্রি কলেজের নব নির্মিত ভবন, নজরুল ইসলাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজের নব নির্মিত ভবন এবং রসুলপুর-এওয়াজপুর মৌত্রী সেতুর উদ্বোধন করেন।
চরফ্যাসন পৌলসভার মেয়র বাদল কৃষ্ণ দেবনাথের সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ভোলা-৩ আসনের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরী শাওন , ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন চরফ্যাশন সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ কায়সার আহম্মেদ দুলাল। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন কিশোরগঞ্জে-৫ আসনের সংসদ সদস্য আফজাল হোসেন। এছাড়াও রাষ্ট্রপতি রাতে চরফ্যাশনের চর কুকড়ি-মুকড়ি একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহন করবেন ও রাতে সেখানের রেষ্ট হাউজে রাত্রি যাপন করবেন।