‘ভালোবাসার দৃশ্য, তাই ব্লাউজ খুলেছি’

বিনোদন ডেস্ক : মুম্বাইয়ের অপরাধ, দুর্নীতি ও রাজনীতির মিশেল নিয়ে তৈরি হয়েছে বলিউড সিনেমা ‘সেক্রেড গেমস’। বিক্রম চন্দ্র নামের এক লেখকের ‘সেক্রেড গেমস’ উপন্যাস অবলম্বনে তৈরি হয়েছে এই সিরিজটি। যেটি যৌথভাবে পরিচালনা করেছেন অনুরাগ কাশ্যপ ও বিক্রমাদিত্য মোতওয়ানে।

অপরাধ-থ্রিলার ‘সেক্রেড গেমস’-এর মূল চরিত্রে রয়েছেন বলিউডের ছোট নবাব সাইফ আলি খান। আরও আছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী, দক্ষিণের অভিনেত্রী রাধিকা আপ্তে ও মারাঠি অভিনেত্রী রাজশ্রী দেশপাণ্ডে। ইতিমধ্যেই ছবিটি বলিউডে বেশ সাড়া ফেলেছে। কিন্তু এই ছবিরই একটি দৃশ্যকে ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক। সোশ্যাল মিডিয়ায় চলছে সমালোচনা।

‘সেক্রেড গেমস’-এ নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকীর স্ত্রী ভূমিকায় অভিনয় করছেন মারাঠি অভিনেত্রী রাজশ্রী দেশপাণ্ডে। ছবিতে স্বামী-স্ত্রীর বিয়ের পরের একটি রোমান্টিক দৃশ্য রয়েছে। সেই দৃশ্যে অভিনয়ের জন্য স্ত্রীর ব্লাউজ খোলার প্রয়োজন ছিল।

কিন্তু এই দৃশ্যে অভিনয়ের পর কার্যত হেনস্তার শিকার হতে হচ্ছে অভিনেত্রী রাজশ্রীকে। তিনি পর্ন তারকা কিনা, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিদিন এমন প্রশ্নই হজম করতে হচ্ছে নায়িকাকে। গত কয়েকদিন ধরে চলতে থাকা এমন পরিস্থিতির পর অবশেষে মুখ খুলেছেন রাজশ্রী। সম্প্রতি স্পটবয়-কে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘আমি একদমই পর্ন তারকা নই। ওই দৃশ্যে বাস্তবের কোনো সেক্স দেখানো হয়নি। যা দেখানো হয়েছে তাকে ক্যামেরা চিটিং বলে। ভালোবাসার দৃশ্য ছিল, তাই ব্লাউজ খুলেছিলাম। কিন্তু সেই দৃশ্যের জন্য এতো কাণ্ড হবে ভাবিনি।’

‘সেক্রেট গেমস’ মুক্তি পায় চলতি মাসের ৬ তারিখে। এর আগেও এই ছবির একটি দৃশ্যকে ঘিরে বিতর্ক শুরু হয়েছিল। যে দৃশ্যে অভিনেতা নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকী তার সংলাপে ভারতের প্রাক্তণ প্রধানমন্ত্রী রাজিব গান্ধীকে ‘ভিতু’ বলে অপমান করেছেন বলে অভিযোগ। যার জেরে রাজিব কুমার সিনহা নামের একজন কংগ্রেস কর্মী কলকাতার গিরিশ পার্ক থানায় নওয়াজের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগও দায়ের করেন।