ব্যালন ডি’অর পাবেন না, আগেই জানতেন মেসি!

ক্রীড়া ডেস্ক : ব্যালন ডি’অরকে যেন নিজেদের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলেছিলেন লিওনেল মেসি আর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গত দশ বছরে তাদের হাতেই ঘুরেফিরে উঠেছে এই ট্রফিটি। তবে এবার মেসি-রোনালদোর রাজত্বে হানা দিয়েছেন লুকা মদ্রিচ। প্রথমবারের মতো
ব্যালন ডি’অর হাতে নিয়েছেন ক্রোয়েশিয়ার এই মিডফিল্ডার।

মেসি-রোনালদোই সবসময় পাবেন, এমন কোনো কথা নেই। তবে এবার ব্যালন ডি’অরে যা হয়েছে, সেটি আসলে মেনে নিতে পারছেন না মেসি ভক্তরা। ট্রফি জেতা না হোক, সেরা তিনে তো অন্ততঃপক্ষে জায়গা হতে পারতো আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের। অথচ ফল প্রকাশের পর দেখা গেল মেসি আছেন পাঁচ নাম্বারে।

এবারের ব্যালন ডি’অর নিয়ে তাই অনেক সমালোচনা হয়েছে। পুরস্কার কতটা স্বচ্ছ ছিল, সেই প্রশ্নও তুলেছেন অনেকে। তবে মেসি এসব বিতর্কে নিজের পক্ষ হয়ে সাফাই গাইলেন না। বরং জানালেন, ব্যালন ডি’অর পাওয়ার আশা তিনিও করেননি।

ব্যালন ডি’অরের সংক্ষিপ্ত তালিকায় মেসি ছিলেন। কিন্তু তখনই নাকি বুঝে গিয়েছিলেন, এবারের পুরস্কারটি তার হাতে উঠবে না। ৩১ বছর বয়সী বার্সা সুপারস্টার বলেন, ‘আমি ব্যালন ডি’অরে মনোনীতদের কথা যখন শুনি। তখন থেকেই জানতাম, আমি এই লড়াইয়ে থাকব না।’

তবে কি মেসি ফুরিয়ে গেছেন? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে চলতি মৌসুমের দিকেই তাকান না! লা লিগায় ১৫ ম্যাচে ১৫টি গোল করেছেন আর্জেন্টাইন খুদেরাজ। করেছেন ১০টি অ্যাসিস্টও।

মেসি যখন তার পুরোনো ঠিকানা লা লিগা মাতাতে ব্যস্ত। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তখন চলে গেছেন অন্য ঘরে। ইতালিতে জুভেন্টাসের হয়ে নিজের সামর্থ্য দেখানোর কাজটা করে যাচ্ছেন পর্তুগিজ যুবরাজ।

মেসি আবারও জানালেন, রোনালদোর সঙ্গে সেরার লড়াইটা তিনি খুব উপভোগ করেন। বার্সা তারকার ভাষায়, ‘রোনালদোর সঙ্গে প্রতিযোগিতাটা খুবই স্বাস্থ্যকর এবং দর্শকদের জন্য এটা খুব সুন্দর একটা লড়াই।’