বৈশাখে রমনা পার্কে বসেছে জুয়ার আসর

নিজস্ব প্রতিবেদক : পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে রমনা পার্কে বসেছে জুয়ার আসর। কারওয়ানবাজারের গোলচত্বর থেকে শাহবাগে সড়কের আরও ছয় জায়গায় বসে এই আসর। ওই রুটে আজ কোনো যান চলাচল না করায় এ সুযোগে জুয়ার আসর বসায় জুয়ারুরা।

তিনটা কোমল পানীয় বোতলে তিনটা বল ছুঁড়ে মারতে হবে। তিনটা বল ছুঁড়ে মেরে যদি কোমল পানীয়গুলোতে লাগাতে পারলে এক লিটারের একটি কোমল পানীয় দেয়া হয় খেলোয়াড়কে। এর জন্য জুয়ার আয়োজককে দিতে হয় ১০ টাকা।

এ ছাড়াও রয়েছে ভিন্ন ঘরানার জুয়ার আসর। কয়েকটি ছোট কোমল পানীয় বোতল রাস্তায় দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। একটি লাঠির মাথায় সুতো দিয়ে চুড়ি বেঁধে দেয়া হয়েছে। এভাবেও চলছে জুয়া খেলা।

শাহবাগ, রমনার দিকে পায়ে হাটা দর্শনার্থীরা এসব খেলার প্রতি মনোযোগী হচ্ছে। এভাবে তাদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে আয়োজক জুয়ারুরা।

জুয়ারুদের উচ্ছেদে পুলিশের তৎপরতা দেখা যায়। পুলিশে এসে এক জুয়ারুকে ধরে নিয়ে গেছে। অন্য আসরের জুয়ারুদের ধরতে গিলে তারা পালিয়ে যায়।

সরেজমিনে দেখা যায়, ১০-১২ জনের একটি দল, যারা জুয়ার আয়োজক। তারা বলাবলি করছে, পুলিশ এখন রাউন্ড দিয়ে গেছে, আধা ঘণ্টার মধ্যে আর আসবে না। এখন আবার শুরু করা যাক। আরেকজন বলছে, এখানে খেলা যাবে না, একটু দূরে চল।

পুলিশ রাউন্ড দিয়ে চলে যাওয়ার পর আবার সক্রিয় হতে দেখা যায় তাদের। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রমনা পার্কের মধ্যে এ ধরনের জুয়ার আসরের দেখা মিলেছে।