বিষ প্রয়োগে কবুতর ও ঘুঘুসহ অর্ধশত পাখি হত্যা

রহিম রেজা, ঝালকাঠি সংবাদদাতা : ঝালকাঠির রাজাপুরে বিষ প্রয়োগ করে পোষা কবুতর ও ঘুঘুসহ অর্ধশত পাখি হত্যার ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। উপজেলার আঙ্গারিয়া গ্রামের সত্য নগর এলাকায় বুধবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটেছে।

দুর্বৃত্তরা বিষ প্রয়োগের মাধ্যমে ওই গ্রামের কাইউম হোসেন ও টিপু হাওলাদারের বেশ কয়েকটি পোষা কবুতর ও ঘুঘুসহ প্রায় অর্ধশত পাখি হত্যার করে।

স্থানীয়রা জানায়, বিকেলে কুকুরে কবুতর ও পাখি গুলো মুখে করে লোকালয়ে নিয়ে এলে বিষয়টি সকলের নজরে আসে। কুকুরে প্রথমে কয়েকটি কুবতর ও ঘুঘু পাখি নিয়ে এলেও পরবর্তীতে একের পর এক মরা এসব পাখি ও কবুতর জনসমূখে নিয়ে এলে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

স্থানীয়দের ধারণা দৃর্বৃত্তরা বিষ দিয়ে এসব পাখি শিকার করেছে অথবা কোন ক্ষেত খামারে বিষপ্রয়োগ করায় তা খেয়ে এসব পাখি ও কবুতর মারা গেছে। এ ঘটনায় ওই এলাকার পোষা কবুতর, হাঁস, মুরগির মালিকরা আতঙ্কে রয়েছে। কুকুরে ৪টি কবুতর ও প্রায় ২০/২৫টি মরা ঘুঘু জনসমূক্ষে নিয়ে এলেও ধারণা করা হচ্ছে এর সংখ্যা অর্ধশত ছাড়াবে।

প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষায় এসব পাখি রক্ষা জরুরি হলেও উপজেলার বিভিন্ন স্থানে নির্বিচারে এসব পাখি হত্যা হলেও প্রশাসনের কোন মাথা ব্যাথা না থাকায় স্থানীয়রা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। স্থানীয়দের দাবি, এসব প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষা করা না গেলে পরিবেশের বিপর্যয় ঘটবে। দ্রুত পাখি হত্যা রোধে কার্যকরী ব্যবস্থা নেয়া উচিত।

উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা মোঃ আব্দুল্লাহ জানান, পাখি হত্যা পরিবেশের জন্য খুবই খারাপ এবং দন্ডনীয় অপরাধ। লোক পাঠিয়ে খোঁজখবর নিয়ে বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

রাজাপুর থানার ওসি মোঃ জাহিদ হোসেন জানান, সব পাখিই পরিবেশের জন্য গুরুত্ব্পূর্ণ। অভিযোগ পেলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।