বিশ্বম্ভরপুরে সেলাই মেশিনের প্রলোভনে ধর্ষণ : চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতির বিরুদ্ধে চার সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

বুধবার রাতে ভিকটিম বাদী হয়ে বিশ্বম্ভরপুর থানায় মামলাটি করেন বলে থানার ওসি নিশ্চিত করেন।

ধর্ষিতার অভিযোগ, সেলাই মেশিন দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে চেয়ারম্যান তাঁর নিজ কার্যালয়ে বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে তাকে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করে বিকালে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা সদরে সাধারণ লোকজন মিছিল ও সমাবেশ করেছে।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হারুনুর রশীদ হারুন তার বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে গণমাধ্যমকে বলেছেন, ‘সবই সাজানো নাটক, আমি রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের শিকার।’

বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মো. মাহবুবুর রহমান জানান, ‘প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় বুধবার রাতে ভিকটিমের পক্ষ থেকে থানায় মামলা নেয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ওই নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।’