বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা হন যে নায়িকারা

বিনোদন ডেস্ক : বিতর্ক মানেই বলিউড। আর অভিনেত্রী হলে তো গসিপের শেষ নেই। শোনা যায়, বেশ কয়েক জন অভিনেত্রী নাকি বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছিলেন। তা নিয়ে বহু বিতর্ক হয়েছে। দেখে নেওয়া যাক তেমনই কয়েক জনকে।

শ্রীদেবী : বিবাহিত বনি কপুরের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান শ্রীদেবী। সেই সময়ই গর্ভবতী হয়ে পড়েন তিনি। অন্তঃস্বত্ত্বা অবস্থায় বিয়ে সারেন। তবে বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে প্রেম হোক বা বিয়ের আগে সন্তান ধারণ, কোনও কিছু নিয়েই বিশেষ রাখ ঢাক করেননি তিনি।

কঙ্কণা সেনশর্মা : দীর্ঘ দিনের বয়ফ্রেন্ড রণবীর শোরের সঙ্গে বিয়ে হয় ২০১০ সালে। কঙ্কণা মা হন ২০১১ সালে। অনেকেই বলেন, বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন কোকো।


বীণা মালিক : বলিউডের অন্যতম বিতর্কিত মুখ বীণা। দুবাইয়ের এক শিল্পপতিকে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ের আগেই নাকি অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বীণা।

 

ডিম্পি গাঙ্গুলি : রাহুল মহাজনের পর দ্বিতীয় বার ডিম্পি বিয়ে করেন রাহুল রয়কে। ২০১৫ সালের নভেম্বরে বিয়ে হয় রাহুল রয়ের সঙ্গে। ২০১৬ সালের জুলাইয়ে ডিম্পল এক কন্যা সন্তানের জন্ম দেন।

সারিকা : কমল হাসানের সঙ্গে যখন ডেট করছিলেন অভিনেত্রী, তখন কমল বিবাহিত। কিন্তু সারিকা নাকি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন। প্রথম স্ত্রীকে ছেড়ে কমল বিয়ে করেন সারিকাকে। কয়েক মাসের মধ্যেই জন্ম হয় প্রথম সন্তান শ্রুতির।

মাহিমা চৌধুরী : ২০০৬ সালে ববি মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে বিয়ে সারেন মাহিমা চৌধুরী। শোনা যায়, গর্ভবতী হওয়াতেই নাকি তড়িঘড়ি বিয়ে সেরে ফেলেন তিনি।

অমৃতা অরোরা : অভিনেত্রী মালাইকা অরোরার বোন অমৃতা। ব্যবসায়ী শাকিল লাদাককে বিয়ের আগেই অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন তিনি, বি টাউনে খবর ছিল এমনটাই।

নেহা ধুপিয়া : তালিকায় নতুন সংযোজন নেহা ধুপিয়া। ক্রিকেটার বিষেণ সিংহ বেদীর ছেলে অঙ্গদ বেদীর সঙ্গে এ বছর বিয়ে সেরেছেন তিনি। নেহা গর্ভবতী হয়ে পড়াতেই নাকি দেরি করতে চাননি দুই পরিবারের কেউ।