বিমানবন্দরের রাস্তায় শিক্ষার্থীরা, বন্ধ যান চলাচল

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাবালে নূর পরিবহনের বাসের নিচে চাপা পড়ে শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করছে কয়েকশ শিক্ষার্থী।

সোমবার সকাল থেকেই দুই সহপাঠী নিহতের ঘটনায় বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনের এলাকায় বিমানবন্দর সড়কের দুই দিক অবরোধ করে রেখেছে। এতে রাজধানীর ব্যস্ততম এই সড়কে যানবাহন চলাচল কার্যত বন্ধ হয়ে পড়েছে। পুলিশ সেখানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে।

রবিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিমানবন্দরের দিকে যাওয়ার পথে জিল্লুর রহমান ফ্লাইওভারের গোড়ায় দাঁড়িয়ে থাকা শিক্ষার্থীদের ওপর জাবালে নূর পরিবহনের একটি বাস এসে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই দুইজনের মৃত্যু হয়। এরা হলেন- শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের মানবিক শাখার দ্বাদশ শ্রেণির আবদুল করিম এবং একাদশ শ্রেণির দিয়া খানম।

এদিন ঘটনার পরই ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট এলাকার ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা বেরিয়ে এসে যানবাহনে ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ শুরু করে।
এদিকে রবিবার রাতে নিহত দিয়ার বাবা জাহাঙ্গীর আলম জাবালে নূর পরিবহনের বিরুদ্ধে বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালিয়ে হত্যার অভিযোগে ক্যান্টনমেন্ট একটি মামলা করেছেন। এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় তিনটি বাসের দুই চালক ও দুই সহকারিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ক্যান্টনমেন্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী শাহান হক বলেন, শিক্ষার্থীরা রাস্তায় অবস্থান করছেন। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করছে। রাস্তা অবরোধ থাকায় যান চলাচল ব্যহত হচ্ছে।