‘বিতর্কিত’ দাওয়াতে অতিথি হয়ে নাচলেন পুতিন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়া পররাষ্ট্রমন্ত্রী কারিন নেইসলে নিজের বিয়েতে অতিথি হিসেবে দাওয়াত দিয়েছিলেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে। এরপরই এই দাওয়াত দেয়া নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়। অনেকে বলেন যে ইইউ এর আইন লঙ্ঘন করে রুশ প্রেসিডেন্টকে দাওয়াত দেয়া হয়েছে।

এমন বিতর্ক যখন চলছে তখন সেই বিয়েতে হাজির হন পুতিন। শুধু তিনি একা নন তার সঙ্গে ছিলো বিয়ের আসরে গান পরিবেশনের জন্য একদল শিল্পী। এসময় বিয়ের কনে কারিনের সঙ্গে নাচেন পুতিন। এছাড়া কনেকে উপহার দেন ফুল।

এর আগে পুতিনকে বিয়েতে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন কারিন নেইসল। অস্ট্রিয়ার সরকারবিরোধী রাজনীতিকরা অভিযোগ করেছেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্টকে আমন্ত্রণ জানিয়ে কারিন নেইসল ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতিকে তাচ্ছিল্য করেছেন।

অস্ট্রিয়ার নারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী কারিন নেইসলের বয়স ৫৩ বছর। তিনি স্টাইরিয়া রাজ্যের ভিনিয়ার্ডে ব্যবসায়ী ওলফগ্যাং মেইলঙ্গারকে বিয়ে করেছেন।

কারিন নেইসল কোনো দলের সঙ্গে সম্পৃক্ত নন। স্বতন্ত্র হিসেবে তাকে পরাষ্ট্রমন্ত্রী করেছে অস্ট্রিয়ার দক্ষিণপন্থী ফ্রিডম পার্টির নেতৃত্বাধীন বর্তমান জোট সরকার। ধারণা করা হয়, এই ফ্রিডম পার্টির সঙ্গে রাশিয়ার ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড রাশিয়া পার্টির যোগাযোগ আছে।

রাশিয়া প্রেসিডেন্টের মুখপাত্র দিমিত্রি পেস্কভ বলেছেন, বিয়েতে অংশ নেয়া অতিথিরা শিল্পীদলের পারফরম্যান্সের প্রশংসা করেছেন।

বিয়ে নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্র নীতিকে তাচ্ছিল্য করারও অভিযোগ আনা হয়েছে অস্ট্রিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কারিন নেইসলের বিরুদ্ধে। আস্ট্রিয়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য দেশ হওয়ায় সেই যুক্তি দিয়ে নেইসলের বিরোধীরা এমন অভিযোগ করেন। এমনকি অস্ট্রিয়ার গ্রিন পার্টি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদ থেকে কারিন নেইসলের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছে। সূত্র: বিবিসি