বিগ ব্যাশ চ্যাম্পিয়ন মেলবোর্ন রেনেগেডস

ক্রীড়া ডেস্ক : লক্ষ্য ১৪৬ রানের, মারকাটারি টি-টোয়েন্টির যুগে বিশেষ করে ফাইনাল ম্যাচে ২০ ওভারে এই রান তেমন বড় কিছু নয়। এই রান তাড়া করতে নেমে উদ্বোধনি জুটিতে মাত্র ১২.৫ ওভারেই ৯৩ রান করে ফেলেন দুই ওপেনার। জয়ের শেষের ৪৩ বলে বাকি থাকে ৫৩ রান।

তখনই মড়ক লাগে ইনিংসে। পরবর্তী ৩০ বলে মাত্র ১৯ রান করতেই সাজঘরে ফিরে যায় ৭ ব্যাটসম্যান। ১২.৫ ওভারে বিনা উইকেটে ৯৩ থেকে ১৭.৫ ওভারে দলের চেহারা দাঁড়ায় ৭ উইকেটে ১১২ রান। মূলত সেখানেই শেষ ম্যাচ। পরের ১৭ বলে বাকি ৩৪ রান আর করা হয়নি মেলবোর্ন স্টারসের।

তাদের ১৩ রানের ব্যবধানে হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট বিগ ব্যাশ লিগের অষ্টম আসরের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মেলবোর্ন রেনেগেডস। এবারই প্রথমবারের মতো বিগ ব্যাশ শিরোপা জিতল মেলবোর্ন রেনেগেডস। বিগ ব্যাশের ২০১৫ সালের আসরে রেনেগেডসের হয়ে মাঠ মাতিয়েছিলেন বাংলাদেশের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।

রোববারের ফাইনাল ম্যাচে আগে ব্যাটিং করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪৫ রান করেছিল মেলবোর্ন রেনেগেডস। জবাবে ৯৩ রানের উদ্বোধনী জুটির পরেও নিজেদের ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৩২ রানের বেশি করতে পারেনি মেলবোর্ন স্টারস।

সেমিফাইনালের মতোই ফাইনাল ম্যাচেও রেনেগেডসের জয়ের নায়ক ড্যান ক্রিশ্চিয়ান। প্রথমে ব্যাট হাতে অপরাজিত ৩৮ রান, পরে বল হাতে ২ উইকেট নিয়ে দলকে ১৩ রানের জয় পাইয়ে দিয়েছেন এ অলরাউন্ডার। অবধারিতভাবেই ম্যাচসেরার পুরস্কারটাও জিতেছেন তিনিই।

টসে হেরে আগে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ পায় মেলবোর্ন রেনেগেডস। শুরুটা তেমন ভালো হয়নি তাদের। প্রথম ১০.২ ওভারে মাত্র ৬৫ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে তারা। ষষ্ঠ উইকেটে দলকে বলার মতো পুঁজি এনে দেন টম কুপার এবং ড্যান ক্রিশ্চিয়ান।

দুজন মিলে মাত্র ৫৮ বলে গড়েন ৮০ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি। কুপার ৩৫ বলে ৪৩ এবং ক্রিশ্চিয়ান খেলেন ৩০ বলে ৩৮ রানের ইনিংস। স্টারসের পক্ষে বল হাতে ২টি করে উইকেট নেন জ্যাক বার্ড এবং অ্যাডাম জাম্পা।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেন স্টারসের দুই ওপেনার বেন ডাঙ্ক এবং মার্কস স্টইনিস। দুজন মিলে মাত্র ৭৭ বলে করেন ৯৩ রানের জুটি। ডাঙ্ক ৪৫ বলে ৫৭ এবং স্টইনিস খেলেন ৩৮ বলে ৩৯ রানের ইনিংস। ১৩তম ওভারের শেষ বলে স্টইনিস আউট হলেও শুরু হয় বিপর্যয়।

এরপরের ৬ ব্যাটসম্যানের কেউই পারেননি দুই অঙ্ক ছুঁতে। শেষদিকে ১০ বলে ১৭ রানের ইনিংস পরাজয়ের ব্যবধানটাই কমান জাম্পা। রেনেগেডসের পক্ষে বল হাতে ২টি করে উইকেট নেন ক্রিস ট্রিম্যান, ক্যামেরন বয়েস এবং ড্যান ক্রিশ্চিয়ান।