বিএনপি’র আন্দোলনে জনগণ সাড়া দিচ্ছে না : ওবায়দুল কাদের

ঢাকা, ১১ মার্চ, ২০১৮ : আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি’র আন্দোলনে জনগণ সাড়া দিচ্ছে না।
তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক আন্দোলনে নামে ২০১৪ সালে তারা যে আগুন সন্ত্রাস ঘটিয়েছে তা বুঝতে পেরেই এখন আর তাদের আন্দোলনে কেউ শরীক হচ্ছে না।
তিনি আজ সকালে জেলার দাউদকান্দির মেঘনা গোমতি সেতু সুপার স্ট্রাকচার নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে একথা বলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের আমলে এ দেশে গণতন্ত্র সারা দুনিয়ায় এবং আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত হয়েছে।
তিনি বলেন, তাদের (বিএনপি) গণতন্ত্র রক্ষা করতে হবে না। তবে এখন গণতন্ত্রের নামে যদি কোন আগুন সন্ত্রাসের কর্মকান্ড ঘটানো হয় তাহলে জনগণ তার সমুচিত জবাব দেবে।
তিনি বলেন, জনগণ আগের চেয়ে অনেক সচেতন এবং সুশৃঙ্খল। সাধারণ জনগণ দেশে কোনে অশান্তি সৃষ্টি চায় না। তাই তারা গণতন্ত্রের নামে যতই চিৎকার করুক দেশের মানুষ তাতে সাড়া দিচ্ছে না।
সেতুমন্ত্রী বলেন, ২০১৯ সালের জুন মাসের মধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কাঁচপুর-মেঘনা ও গোমতির দ্বিতীয় সেতু নির্মাণ কাজের সমাপ্তির সময় নির্ধারণ করা হলেও চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যেই এ সেতুর কাজ শেষ হবে।
তিনি বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যানজট নিরসন এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে যাতায়াতের সুবিধার জন্য মহাসড়কের তিনটি সেতু নির্মাণ কাজ অনেক দূর এগিয়ে গেছে।
কাদের বলেন, এতে প্রকল্প ব্যয় ৭শ’ কোটি টাকা সাশ্রয় হবে এবং সময়ও কম লাগবে। তিনি এ কাজ চলাকালীন সময়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চলাচলকারীদের সাময়িক ভোগান্তির জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন।
এ সময় প্রকল্প পরিচালক মো. সাইদুল হক, অতিরিক্ত প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী এ এফ এম ইলিয়াস হোসেন, সওজ’র অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মো. আ. সবুর, দাউদকান্দি উপজেলা চেয়ারম্যান মেজর (অব.) মোহাম্মদ আলী সুমন, পৌরসভার মেয়র নাঈম ইউসুফ শেখ উপস্থিত ছিলেন।

Inline
Inline