বিএনপির অনশন নাটক: হানিফ

নিজস্ব প্রতিবেদক : দলীয় চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দলটির প্রতীকী অনশনকে নাটক বলেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হা‌নিফ। বলেছেন, এগুলো করে লাভ হবে না। আদালতের মাধ্যমে সাজাপ্রাপ্ত আসামিকে মুক্ত করতে হলে আদালতেই যেতে হবে।

সোমবার রাজধানীর গুলশান ইয়ুথ ক্লাবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের আ‌য়োজিত বর্ধিত সভায় এ মন্তব্য করেন ক্ষমতাসীন দলের নেতা।

একই দিন সকালে রাজধানীতে চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে সাত ঘণ্টার প্রতীকী অনশন করেছে বিএনপি। এতে দলের শীর্ষ নেতাদের পাশাপাশি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারা অংশ নেন।

যদিও কর্মসূচির আশেপাশে পানি, পুরি, শশা, গাজর বিক্রেতারা পণ্য নিয়ে অবস্থান নিয়েছেন এবং তাদের বিক্রি বেশ ভালো বলে জানিয়েছেন তারা। অনশনে আসা বিএনপির নেতা-কর্মীরাই তাদের কাছ থেকে খাবার কিনেছেন বলে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে এসেছে।

বিএনপিকে আন্দোলনের ‘নাটক’ বন্ধ করে সরকারের উন্নয়নের সঙ্গে থেকে সরকারকে সহযোগিতার অনুরোধ করেন হা‌নিফ। বলেছেন, এটা করলে জনগণ বিএনপিকে ‘ক্ষমা’ করেও দিতে পারে।

‘আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া বেগম জিয়া‌কে মুক্ত করা সম্ভব নয় । আন্দোলন এবং বিদেশি লবিস্ট দিয়ে চেষ্টা করে তার ( খালেদা জিয়া) মুক্তি মিলবে না। এসব করেও বিএনপি নেতাদের কোন লাভ হবে না।’

কোটা সংস্কার আন্দোলন নিয়ে বিএন‌পি- জামায়াত দূরে থেকে ষড়যন্ত্র করছে বলেও অভিযোগ করেন আওয়ামী লীগের এই নেতা। বলেন, ‘কোটা সংস্কার বিষয়ে বিএনপি নানান সময় নানান কথা বলেছে। তাতেই বুঝা যায় কোটা সংস্কারের সঙ্গে তাদের ষড়যন্ত্র এক যোগসূত্রে গাঁথা। কোটা সংস্কারের নাম করে দেশে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করার চেষ্টা করা হয়েছে ।’

কোটা আন্দোলন থেকে সরে আসতে ছাত্রদের প্রতি আহ্বান জানান হানিফ। বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এ দাবিকে সমর্থন জানিয়ে‌ছে। এমন‌কি একটি কমিটিও তৈরি করা হয়েছে। তাঁরা এটা পর্যবেক্ষণ করছে। তাই আমি মনে করি এখন এই বিষয় নিয়ে কোনো আন্দোলন করা উচিত নয় ।’

ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এ কে এম রহমত উল্লাহর সভাপতিত্বে বর্ধিত সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবাহান গোলাপ, উত্তরের সাধারণ সম্পাদক সাদেক খান প্রমুখ।

Inline
Inline