বার্সার ইতিহাস গড়ার হাতছানি

ক্রীড়া ডেস্ক : বছরের শেষভাগে দারুণ এক ইতিহাসের সামনে দাঁড়িয়ে বার্সেলোনা। প্রথম দল হিসেবে ক্লাব বিশ্বকাপে তৃতীয় শিরোপা জয়ের হাতছানি কাতালানদের। সেই লক্ষ্যে আজ প্রতিযোগিতার ফাইনালে আর্জেন্টিনার ক্লাব রিভার প্লেটের মুখোমুখি হচ্ছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা।

জাপানের ইয়োকোহামার নিশান স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল সাড়ে চারটায়। ম্যাচটি সরাসরি দেখাবে নিও স্পোর্টস ও নিও প্রাইম চ্যানেল।

এই রিভার প্লেটের হয়েই ক্লাব ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন বার্সেলোনার রক্ষণাত্মক মিডফিল্ডার হাভিয়ের মাশচেরানো। কৈশোরের ক্লাবের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে কিছুটা আবেগ কাজ করলেও বার্সার হয়ে শিরোপা জেতাই তার মূল লক্ষ্য বলে জানালেন এই আর্জেন্টাইন।

এর আগে ২০০৯ ও ২০১১ সালে দুবার ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছিল বার্সেলোনা। ২০১১ সালের জয়ী দলে ছিলেন মাশচেরানোও। এবার দলের হয়ে দ্বিতীয় শিরোপা জিততে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ আর্জেন্টিনা তারকা, ‘আমি বার্সাতে সম্পূর্ণভাবে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমি জিততে (শিরোপা) চাই। আরেকবার ক্লাব বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ঐতিহাসিক সুযোগ আমার সামনে।’

প্রতিযোগিতার সেমিফাইনালে উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজের হ্যাটট্রিকে চীনের ক্লাব গুয়াংজু এভারগ্রান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে বার্সা। তবে ওই ম্যাচে খেলতে পারেননি বার্সার আক্রমণভাগের অন্য দুই তারকা লিওনেল মেসি ও নেইমার। কুঁচকির চোটে ছিলেন নেইমার। আর মেসির কিডনিতে জটিলতার কারণে পেটে ব্যথা হচ্ছিল বলে খেলতে পারেননি।

পরশু অস্ত্রোপচার করে মেসির কিডনির পাথর অপসারণ করা হয়েছে। নেইমারও চোট কাটিয়ে উঠেছেন। শনিবার দলের সঙ্গে অনুশীলনও করেছেন দুজন। তবে আজ ফাইনালে নেইমারের খেলা অনেকটা নিশ্চিত হলেও মেসিকে নিয়ে সংশয় রয়েই গেছে।

বার্সা দুবার ক্লাব বিশ্বকাপের শিরোপা জিতলেও রিভার প্লেটের এখনো শিরোপার স্বপ্ন পূরণ হয়নি। বার্সার সঙ্গে শক্তির পার্থক্য থাকলেও আজ শিরোপা জয়ের সংকল্পে তাই একটুও কমতি নেই আর্জেন্টিনার ক্লাবটির। ফাইনালের আগে বার্সাকে একরকম হুমকিই দিয়ে রেখেছেন রিভার প্লেটের স্ট্রাইকার লুকাস আলারিও, ‘অনেক দিন ধরে এই শিরোপাটার স্বপ্ন দেখছি। আশা করছি সেই স্বপ্ন এবার সত্যি হবে।’

এ বছর লা লিগা, উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ, কোপা ডেল রে ও ইউরোপিয়ান সুপার কাপ- মোট চারটি শিরোপা ঘরে তুলেছে বার্সেলোনা। এবার ক্লাব বিশ্বকাপ জিতলে শিরোপার সংখ্যা আরেকটা বেড়ে যাবে। সেই সঙ্গে ক্লাব বিশ্বকাপে গড়বে ইতিহাস।

Leave a Reply