বাণিজ্য মেলায় স্বাধীনতা জানাবে বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন

কাল সোমবার শুরু হতে যাওয়া ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৮ এর পদ্মা সেতুর স্পাম আদলে গড়া প্রধান ফটকের ভেতর দিয়ে ঢুকে সোজা একটু আগালেই দর্শনার্থীদের চোখ পড়বে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের একটি সাদা ভাস্কর্য। এর পেছনে রয়েছে বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন।

প্যাভিলিয়নের প্রবেশপথের ওপরে লেখা ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান-এর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণ ইউনেস্কো কর্তৃক ‘বিশ্ব প্রামাণ্য ঐতিহ্য’ হিসাবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আমরা গর্বিত।’

প্যাভিলিয়নে প্রবেশ করলে প্রথমে একটি চিত্রকর্মে বঙ্গবন্ধুর ছবির সঙ্গে গ্রামীণ প্রকৃতি ও শিশুদের ছবি। সেখানে লেখা ‘জতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তাঁর আরেকটি ছোটনাম ‘খোক’। শৈশব থেকেই দুঃখী ও গরিব মানুষের প্রতি দরদি।’

গতবারও মেলায় বঙ্গবন্ধু প্যভিলিয়ন দেয়া হয়েছিল।

রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর পক্ষ থেকে জানানো হয়, গতবারের তুলনায় এ বছর বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন আকারে প্রায় দ্বিগুণ। এই প্যাভিলিয়নের ভেতরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনীর ওপর ভিত্তি করে বাংলাদেশ শিশু একাডেমী প্রকাশিত ২৬টি চিত্রকর্ম প্রদর্শন করার উদ্যেগ নেয়া হয়েছে। এ ছাড়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে ডকুমেন্টারি প্রদর্শনের জন্য একটি থিয়েটার কক্ষ রয়েছে। বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মভিত্তিক বিভিন্ন আলোকচিত্রও প্রদর্শন করা হবে প্যাভিলিয়নে।

বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন সম্পর্কে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ১৯৭১ সালের ৭ মার্চের ভাষণকে ইউনেসকো বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় প্যাভিলিয়নটি নান্দনিক করে সাজানো হয়েছে, যাতে নতুন প্রজন্ম, দেশি-বিদেশি সবাই দেশ ও বঙ্গবন্ধুর সত্যিকার ইতিহাস জানতে পারে।

ইপিবি ভাইস চেয়ারম্যান বিজয় ভট্টাচার্য জানান, বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়নের মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস, স্বাধিকার আন্দোলন ও স্বাধীনতা সংগ্রামে বঙ্গবন্ধুর আবদান, বঙ্গবন্ধুর বর্ণাঢ্য রাজনৈতিক জীবনের বিভিন্ন দিক ছাড়াও যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে উন্নয়নের ধারায় এগিয়ে নেয়ার প্রকৃত ইতিহাস সবার কাছে বিশেষ করে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরার প্রয়াস নেয়া হয়েছে।

রবিবার বঙ্গবন্ধু প্যভিলিয়নে গিয়ে দেখা যায়, প্যাভিলিয়নটি ধোয়ামোছার কাজ চলছে। চিত্রকর্মগুলো দেয়ালে সাজানো। প্যাভিলিয়নের অবকাঠামো নির্মাণের দায়িত্বে থাকা সাহনেওয়াজ ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু প্যাভিলিয়ন নির্মাণের সব কাজ শেষ। এখন শুধু ধোয়ামোছার কাজ বাকি। আজকের মধ্যেই সেটা শেষ হবে।’

আগামীকাল ১ জানুয়ারি সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা-২০১৮ উদ্বোধন করবেন। শেরেবাংলা নগরে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের পশ্চিম পাশের মাঠে আয়োজিত এ মেলা শেষ হবে ৩১ জানুয়ারি।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে সবার জন্য। প্রবেশ টিকিটের মূল্য ৩০ টাকা এবং অপ্রাপ্তবয়স্ক ২০ টাকা।

Inline
Inline