বাঘের থাবা থেকে ভাইকে বাঁচালো ১১ বছরের বোন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : গ্রামে যাদের শৈশব কেটেছে বাড়ির আশেপাশের জঙ্গলে দুরন্তপনা তাদের শৈশবের অন্যতম একটা স্মৃতি। আর এই দুরন্তপনার অন্যতম সঙ্গী হতো ভাই-বোন। জঙ্গলে ছোটখাটো বিপদেরও সম্মুখীন হতে হতো। তবে ভারতে ১১ বছর বয়সী এক বোন তার ছোট ভাইকে চিতাবোঘের হাত থেকে বাঁচিয়ে শিরোনাম হয়েছেন।

ছোট ভাইয়ের সঙ্গে খেলছিলো ১১ বছরের রাখি। হঠাৎ করেই জঙ্গলে ঝোপের আড়াল থেকে ঝাপিয়ে পড়ে একটা চিতা বাঘ। তা দেখে চার বছরের ভাইয়ের উপর শুয়ে পরে রাখি। চিতাটা রাখির শরীর ক্ষত-বিক্ষত করে ফেলে। নিজের শরীর দিয়ে হলেও ছোট ভাইকে অক্ষত রাখতে সক্ষম হয় রাখি।

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের পাউরি জেলার দেবকুণ্ডাই টাল্লি নামক গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। রাখির চাচী মধু দেবী জানান, ‘ঝোপের আড়াল থেকে বাঘটি রাখি ও তার ভাইয়ের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। কিন্তু পালিয়ে যায়নি রাখি। মাটিতে ভাইকে শুইয়ে, তার উপর শুয়ে ভাইকে আগলে রাখে।’

তিনি জানান, জঙ্গলে রাখি ও তার ভাইয়ের চিৎকার শুনে স্থানীয়রা ছুটে আসে। অনেক মানুষ দেখে ভয়ে বাঘটি পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রাখিকে দ্রুত স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। শারীরিক পরিস্থিতি সঙ্কটজনক হতে থাকলে তাকে দিল্লির একটি সরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরকরা হয়।

রাখির চিকিৎসা চলছে। কিছুদিন গেলেও সে সুস্থ হয়ে উঠবে বলে আশ্বস্ত করেছেন ওই হাসপাতালের চিকিৎসকরা। ভাইকে বাঁচিয়ে সাহসিকতা দেখানোর জন্য কিশোরী রাখিকে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে পুরস্কার দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন পাউরির জেলা প্রশাসক ডিএস গারবাল।