বাগেরহাটে ধান কাটা নিয়ে সংঘর্ষ, নিহত ২ ও আহত ৬

বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার পূর্ব সোনাখালী গ্রামে বিবদমান জমির ধান কাটা নিয়ে সংঘর্ষে ২ জন নিহত ও ৬ জন আহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার সকালে এই ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, উপজেলার বলইবুনিয়া ইউনিয়নের পাতাবাড়িয়া গ্রামের তোরাব শেখের ছেলে ইব্রাহিম শেখ (৪৮)। অপরজন হলেন- একই ইউনিয়নের আমবাড়িয়া গ্রামের মো. শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে পলাশ (৩২)। আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় কবির হোসেন ও মজিবর রহমানকে খুলনা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহতরা হলেন- বলইবুনিয়া ইউনিয়নের আসাদুজ্জামান শেখ, পাতাবাড়িয়া গ্রামের শেখ জাহিদুল ও পূর্ব সোনাখালী গ্রামের গিয়াস খান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পূর্ব সোনাখালী গ্রামের মৃত. মোজাহারখানের ছেলে রহিম খানের সাথে কবলাকৃত ৩ বিঘা জমি নিয়ে একই গ্রামের প্রতিপক্ষ মৃত. জবেদ আলী খানের ছেলে শহিদুল খান গংদের বিবাদ চলে আসছিল। চলতি বছরে কবির খান নামে আরেক ব্যক্তি এ জমি চাষাবাদ করে। ঘটনার দিন সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ জমিতে শহিদুল খান, মজিবর খান, ওহাব খানের নেতৃত্বে ৯/১০ জন পূর্ব পরিকল্পিতভাবে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র সজ্জিত হয়ে বিবদমান জমির ধান কাটতে যায়। এসময় রহিম খানের ছেলে গিয়াস খান তার মামা শ্বশুর বলইবুনিয়া ইউনিয়নের সাবেক যুবলীগ সভাপতি কবির হোসেনকে জানায়। খবর পেয়ে কবির হোসেন সহ ৪/৫ জন ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের ধান কাটা থেকে নিবৃত করার চেষ্টা করলে প্রতিপক্ষরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অতর্কিতে হামলা চলায়। হামলায় পলাশ ও ইব্রাহিম গুরুতর আহত হলে তাদেরকে মোরেলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

থানা অফিসার ইনচার্জ মো. রাশেদুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি জানান, অপরাধীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। অপরাধী যেই হোক তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।