বর্ষবরণের উচ্ছ্বাসে মেতেছে রাবি শিক্ষার্থীরা

বর্ণিল আয়োজনে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে সারাদেশের মতো রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে বর্ষবরণ। বর্ষবরণকে ঘিরে ক্যাম্পাসে হাজার হাজার শিক্ষার্থীদের আগমন ঘটেছে। দিনটিতে ঢাক-ঢোলের বাজনার তালে তালে আনন্দ উচ্ছ্বাসে মেতে উঠেছেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, নববর্ষকে ঘিরে বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের আগমন ঘটতে শুরু করে। বেলার বাড়ার সাথে সাথে ক্যাম্পাস তরুণ-তরুণীদের উপস্থিতিতে মুখর হয়ে উঠেছে। রঙ-বেরঙের শাড়ি আর পাঞ্জাবি পরে ক্যাম্পাস দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। চলছে প্রেমিক-প্রেমিকাদের খুনসুটি।

ক্যাম্পাস সূত্র জানায়, দিবসের শুরুতে সকাল ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র থেকে মঙ্গল শোভাযাত্রা বের করা হয়। এটির উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর মুহম্মদ মিজানউদ্দিন। এর আগে বিভিন্ন বিভাগ ভিন্ন ভিন্ন র‌্যালি নিয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে সেখানে এসে মিলিত হয়। র‌্যালিতে শিক্ষার্থীদের হাতে নানা প্লাকার্ডসহ বাঙালিদের নানা জিনিসপত্র শোভা করতে দেখা যায়।

এদিকে পহেলা বৈশাখে প্রতিবছরের মতো এবারো ক্যাম্পাসে মূল আয়োজন চলছে চারুকলা অনুষদে। এবার অনুষদ প্রাঙ্গণে দুই দিনব্যাপী বৈশাখী মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলা চলাকালে বিভিন্ন লোকজ সঙ্গীত, নৃত্য, নাটকসহ নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হচ্ছে।

এছাড়া দ্বিতীয় বিজ্ঞান ভবনের সামনে ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগ, দ্বিতীয় ও তৃতীয় বিজ্ঞান ভবনের মাঝে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগ, দ্বিতীয় বিজ্ঞান ভবনের সামনে গণিত বিভাগ, একই স্থানে মনোবিজ্ঞান বিভাগ, ইসমাঈল হোসেন সিরজী ভবনের সামনে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ, ডিনস ভবনের সামনে ভাষা বিভাগ, ডিনস ভবনের উত্তর দিকে লোক প্রশাসন বিভাগ ও রবীন্দ্র কলা ভবনের সামনে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ নানা আয়োজনে বর্ষবরণ করছে। বিভাগের শিক্ষার্থীরা নেচে গেয়ে আনন্দ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছে।

এদিকে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী ও সাংস্কৃতিক সংগঠনও দিনটি উদযাপনে করছে।