বর্তমান সরকার তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেছে : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি : খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেছেন, প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান, দক্ষতা ও মনোবল মানুষের সম্পদ বা মূলধন। এ সম্পদ কাজে লাগিয়ে বেকারত্বের অভিশাপ থেকে মুক্ত হয়ে জীবন যাত্রার মানোন্নয়নসহ দেশের সমৃদ্ধি অর্জনে ভূমিকা রাখা সম্ভব। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেছে। ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের আধুনিক তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ে দক্ষতা বাড়াতে পারলে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতি ত্বরান্বিত হবে বলে সিটি মেয়র অভিমত ব্যক্ত করেন।

সিটি মেয়র সোমবার দুপুর ১২টায় নগরীর সোনাডাঙ্গাস্থ কেসিসি সোলার এনার্জি ট্রেনিং সেন্টারে ‘‘নারী আইসিটি ফ্রি-ল্যান্সার এবং উদ্যোক্তা উন্নয়ন কর্মসূচী’’র আওতায় নারী উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।

উল্লেখ্য, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আওতায় ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ফাউন্ডেশন (এসএমই ফাউন্ডেশন), প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রোগ্রাম এবং বাংলাদেশ উইমেন ইন টেকনোলজী (বিডব্লিউআইটি)’র মাধ্যমে ‘‘নারী আইসিটি ফ্রি-ল্যান্সার এবং উদ্যোক্তা উন্নয়ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করছে। এসএসসি সম্পন্নকারী ও বেসিক কম্পিউটার জ্ঞানসম্পন্ন নারীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আইসিটি ফ্রি-ল্যান্সার/উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলা এ কর্মসূচীর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। ২৬ দিন ব্যাপী এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় ২টি ব্যাচে ৪০ জন নারী প্রশিক্ষণার্থী প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করেন। সিটি মেয়র প্রশিক্ষণলব্ধ জ্ঞান কাজে লাগিয়ে নিজেকে স্বাবলম্বী করার জন্য প্রশিক্ষণে অংশগ্রহণকারীদের প্রতি আহবান জানান এবং তাদের হাতে সনদপত্র তুলে দেন।

কেসিসি’র আইসিটি স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর মোঃ মাহবুব কায়সার-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে কেসিসি’র প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা প্রকৌশলী মোঃ আব্দুল আজিজ, প্রধান প্রশিক্ষক মহানন্দ সরকার, কেসিসি’র আইসিটি ম্যানেজার শেখ হাসান হাসিবুল হক, উপ-সহকারী প্রকৌশলী (বিদ্যুৎ) মোস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ বক্তৃতা করেন। স্বাগত বক্তৃতা করেন উদ্যোক্তা ও কো-অর্ডিনেটর মোঃ হায়দার আলী।

এর আগে সিটি মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান শেরে বাংলা রোডস্থ পৌর গ্যারেজে বহুতল গ্যারেজ শেড ও খালিশপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুলের নির্মাণ কাজ এবং মুজগুন্নী মোল্লাপাড়া রোডে চলমান কার্পেটিং কাজ সরেজমিন পরিদর্শন করেন। তিনি কাজের গুণগত মান ঠিক রেখে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, কেসিসি’র প্রধান প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ নাজমুল ইসলাম, নির্বাহী প্রকৌশলী লিয়াকত আলী খান, সহকারী প্রকৌশলী শেখ মোহাম্মদ হোসেনসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।