বরিশালে এক সাংবাদিকের উপর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে

নিজস্ব সংবাদদাতা : বরিশালে ডিবিসি নিউজের ক্যামেরাপারসন সুমন হাসানকে ডিবি পুলিশের কার্যালয়ে নিয়ে তার অণ্ডকোষ চেপে ধরে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন দুঃখ প্রকাশ এবং সংশ্লিষ্ট টিমের আট পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করেছে।

আজ মঙ্গলবার বরিশাল মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কার্যালয়ে ওই নির্যাতনের ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত সুমন হাসান বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

অভিযোগে জানা যায়, সুমনকে প্রথম নির্যাতন শুরু করেন উপপপরিদর্শক (এসআই) আবুল বাশারের টিমের সদস্য কনস্টেবল মাসুদ। এ সময় সুমনকে হাতকড়া পরিয়ে অমানবিক নির্যাতন করা হয়। সুমনের সহকর্মীরা তাকে বাঁচাতে গিয়ে পুলিশের অশ্লীল আচরণের শিকার হন।

এ ঘটনায় মহানগর ডিবি পুলিশ ও স্থানীয় পুলিশের ঊর্র্ধ্বতন কর্মকর্তারা বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন বলে জানায় পুলিশ সূত্র।
নির্যাতনের শিকার সুমন হাসান বলেন, ‘ঘটনাস্থলে বসে আমাকে যা করার তো করেছে। পরে ডিবি অফিসে নিয়ে গিয়ে কনস্টেবল মাসুদ আমাকে হাতকড়া পরা অবস্থায় অ-কোষ চেপে ধরে বেধড়ক মারধর করে।’
আজকের নির্যাতনের ঘটনার পর বিস্তর অভিযোগ উঠছে পুরো মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের টিমের বিরুদ্ধে। তারা বিনা কারণে সাধারণ মানুষকে হয়রানি করছে। কাউকে ফেনসিডিল, গাঁজা অথবা ইয়াবা দিয়ে আটকের পর জিম্মি করে অর্থ নেয়ার ঘটনার অভিযোগও কম নয়।

সাংবাদিক সুমন হাসানকে নির্যাতনের ঘটনায় বরিশাল মহানগর পুলিশ দুঃখ প্রকাশ করেছে সাংবাদিকদের কাছে। ওই টিমের আট সদস্যকে ক্লোজড করা হয়েছে।

Inline
Inline