ফিলিপিন্সে ভয়াবহ আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণে বিপদসংকেত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 

ফিলিপিন্সের তাল আগ্নেয়গিরি থেকে ব্যাপকহারে নুড়ি ও ছাই উদগীরণ হচ্ছে। ভয়াবহ বিস্ফোরণের আশঙ্কায় ৪ নম্বর বিপদসংকেত জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। আগ্নেয় সুনামির পূর্বাভাস দিয়েছে দেশটির আগ্নেয়গিরি এবং ভূকম্পবিদ্যা দফতর।

ইতোমধ্যে স্থানীয়দের সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ম্যানিলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। এতে বিপাকে পড়েছেন পর্যটকরা।

রোববার (১২ জানুয়ারি) ফিলিপিন্সের রাজধানী ম্যানিলার দক্ষিণাঞ্চলীয় তাল আগ্নেয়গিরিতে ছাই নির্গমণ শুরু হয়। মুহূর্তে তা আশপাশের এক কিলোমিটার এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় বিস্ফোরণ ও ভূমিকম্প অনুভূত হয় বলে জানান স্থানীয়রা।

তারা বলেন, আগ্নেয়গিরি সক্রিয় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই আমরা সেখানে যাই। রাস্তায় তখন প্রচণ্ড ভীড়। ধোয়ায় সবকিছু অন্ধকার হয়ে যায়।

ভয়াবহ বিস্ফোরণের শঙ্কায় ইতোমধ্যে, ওই এলাকায় বসবাসরত ৮ হাজার বাসিন্দাকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তাদের উদ্ধারে অংশ নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন ও স্বেচ্ছাসেবীরা।

আকাশে ছাই ও নুড়ি ছড়িয়ে পড়ায় বন্ধ করে দেয়া হয়েছে ম্যানিলা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। আটকা পড়েছেন বহু পর্যটক।

পর্যটকরা বলেন, ফ্লাইট বিলম্ব হচ্ছে। বহু ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। খুবই সঙ্কটে পড়েছি। কিন্তু কিছু করার নেই।

তাল হ্রদের মাঝখানে অবস্থিত দ্বীপে আগ্নেয়গিরিটি অবস্থিত। মনোরম দৃশ্যের কারণে বরাবরই জায়গাটি পর্যটকদের কাঙ্ক্ষিত গন্তব্য।

তাল আগ্নেয়গিরি পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট আগ্নেয়গিরির একটি। ১৯৭৭ সালের পর প্রথমবার এটি সক্রিয় হয়েছে। সাড়ে ৪শ’ বছরের ইতিহাসে তাল আগ্নেয়গিরি ৩৪ বার সক্রিয় হয়।