প্রশ্ন কঠিন হওয়ায় বরিশালে পরীক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

বরিশালের গৌরনদীতে একটি পরীক্ষা কেন্দ্রে অর্ধশতাধিক এসএসসি পরীক্ষার্থী বিক্ষোভ প্রদর্শন করে মহাসড়ক অবরোধ করেছে।


গণিতের প্রশ্ন কঠিন হওয়ার প্রতিবাদে ও পুনরায় এই পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে শনিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে উপজেলার বার্থী তাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে ও কেন্দ্রের সামনে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে এ বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা।

থানা পুলিশ তাৎক্ষণিক বিক্ষুব্ধদের শান্ত করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


অপরদিকে চলতি পরীক্ষা শুরু থেকেই পরীক্ষা কেন্দ্রে সাংবাদিক প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) খালেদা নাছরিন।
ওই কেন্দ্রের একাধিক পরীক্ষার্থী জানান, চলতি এসএসসি পরীক্ষার গৌরনদী উপজেলার বার্থী তাঁরা মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরীক্ষা কেন্দ্রে উপজেলার বার্থী, মেদাকুল, ধানডোবা, বাকাই, খাঞ্জাপুর, বাউরগাতি হাইস্কুলের ৭০৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। চলতি এসএসসি পরীক্ষা শুরু থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রের সংশ্লিষ্টি কর্মকর্তা ও দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকরা পরীক্ষার্থীদের ঘাড় ঘুরাতে দিচ্ছেন না। এমনকি গণিত পরীক্ষার প্রশ্ন কমন না পড়ায় ইউএনও এবং কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষকরা পরীক্ষার সময় কোনো পরীক্ষার্থীকে ঘাড় ঘুরাতে দেননি ও কোনো সুযোগও পায়নি।
কর্মকর্তারা কড়াকড়ি করে পরীক্ষা নেয়ার ফলে পরীক্ষা খুবই খারাপ হয়েছে। গণিত প্রশ্ন কঠিন হওয়ার প্রতিবাদে ও পুনরায় এই পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে শনিবার দুপুর সোয়া ১টার দিকে অর্ধশতাধিক পরীক্ষার্থী কেন্দ্র সচিবের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।
এরপর তারা ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের ওপর দাঁড়িয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন ও মহাসড়কে ব্যারিকেড সৃষ্টি করেন। কেন্দ্রের দায়িত্বরত থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বিক্ষুব্ধ পরীক্ষার্থীদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দিয়ে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করেন।
এ ব্যাপারে বার্থী কেন্দ্রের কেন্দ্র সচিব ও বার্থী তারাঁ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক বিএম ইদ্রিস বলেন, গণিত কমন না পড়ায় সব পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা খারাপ হয়েছে। তাই শনিবারের সাধারণ গণিত পরীক্ষা বাতিল করে নতুন করে পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে পরীক্ষার্থীরা।
গৌরনদী মডেল থানার এসআই মো. সগীর বলেন, পরীক্ষা শেষে পরীক্ষার্থীরা মহাসড়কে অবস্থান নেয়ার খবর পেয়ে তিনি সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে ছাত্রদের ছত্রভঙ্গ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।
গৌরনদী উপজেলা পরীক্ষা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও ইউএনও খালেদা নাছরিন বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল করতে না দেয়ায় বিক্ষুব্ধ পরীক্ষার্থীরা মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেছে। নকলমুক্ত পরীক্ষা নিতে সব ধরনের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।