প্রশ্নফাঁসের ঘোষণা: রংপুরের ওসির ছেলে ঢাকায় গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলমান এইচএসসি পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের কথা বলে প্রতারণার চক্র চালানোর অভিযোগে রংপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওসি বাবুল মিয়ার ছেলেকে ঢাকায় গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

আটক যুবকের নাম এহসানুল কবির। তাদের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গি থানার গোরিয়ালি গ্রামে।

ঢাকায় এহসানুল থাকতেন মালিবাগ বাজার রোডের একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন বলে জানিয়েছে র‌্যাব। তারা জানায়, বৃহস্পতিবার ওই বাসা থেকেই ধরা হয় তাকে।

শুক্রবার র‌্যাবের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ওসিপুত্র সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে প্রলোভন দেখিয়ে শিক্ষার্থীদের কাছে টাকা নিয়ে ভুয়া প্রশ্নপত্র আদান-প্রদান করতেন।

র‌্যাবের ভাষ্যমতে নিজের হোয়াটাঅ্যাপ গ্রুপের ‘Per Question ৩০০ টাকা HSC’ এবং ফেইসবুকে ‘Kusen Deta’ নামে আইডি খুলে প্রশ্নফাঁসের প্রচারণা চালাতেন এহসান। এসব আইডিও অ্যাডমিনও তিনি।

তবে জানতে চাইলে এহসানুলের বাবা বাবুল মিয়া দাবি করেন তার ছেলে ষড়যন্ত্রের শিকার। এহসানুল অটিজম আক্রান্ত বলেও দাবি করেন তিনি।

গত ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষায় প্রায় প্রতিটি বিষয়ের এমসিকিউ বা নৈর্ব্যত্তিকের প্রশ্নই আগেভাগে এসেছে সামাজিক মাধ্যমে। তবে চলমান এইচএসসির তিনটি পরীক্ষার একটিরও প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ মেলেনি।

এর মধ্যেও ফেসবুকে প্রশ্ন ফাঁসের ‘বিজ্ঞাপন’ চলছে। ভোরে নরসিংদী থেকেও পুলিশ একজনকে আটক করেছে যিনি প্রশ্ন দেবেন বলে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। অবশ্য সে প্রশ্ন আর দিতে পারেননি তিনি।

র‌্যাব জানায়, একইভাবে টাকা আদায় করছিলেন রংপুরের ওসিপুত্র। তিনিও শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিতেন মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে। এরকম ত্রিশটির বেশি গ্রুপের অ্যাডমিনদের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল।

র‌্যাবের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এহসানুলের হোয়াটাসঅ্যাপ গ্রুপের সদস্য সংখ্যা এক হাজারের বেশি। নামে-বেনামে ফেইসবুক ও হোয়োটসঅ্যাপে অনেক গ্রুপ খুলেছেন তিনি।

Inline
Inline