প্রশ্নফাঁসের অভিযোগের মধ্যেই ঢাবি ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক : তদন্তে প্রশ্নফাঁসের জালিয়াতি ধরা পড়লেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এই ইউনিটে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর সংখ্যা সম্মিলিতভাবে (বিজ্ঞান, মানবিক ও বিজনেস শাখা) শতকরা ২৬ দশমিক ২১ শতাংশ। যা অন্য যে কোনো বারের চেয়ে দ্বিগুণ। গত বছর এই ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষায় পাসের হার ছিল ১৪ দশমিক ৩৫। আর আগের বছর অর্থাৎ ২০১৬-১৭ সেশনে এই হার ছিল ৯ দশমিক ৮৩।

মঙ্গলবার বিকাল ৩টা ৪০ মিনিটে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ভর্তি অফিসে উপাচার্য আখতারুজ্জামান আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফল প্রকাশ করেন।

গত শুক্রবার অনুষ্ঠিত ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ওঠে। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অভিযোগটি তদন্তে কমিটিও করে। ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি হয়েছে বলে মঙ্গলবার প্রতিবেদনও দেয় সেই কমিটি। এছাড়া প্রশ্নফাঁসের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের করা এজাহারের প্রেক্ষিতে ৬জনকে গ্রেপ্তারও করে পুলিশ।

এদিকে ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা বাতিলের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থী ও প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো আন্দোলনও করছে। তবে পুনরায় ভর্তি পরীক্ষার দাবি আমলে না নিয়েই ফল প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ।

যেভাবে জানা যাবে ফল

মোবাইল অপারেটরের মেসেজ অপশনে গিয়ে DU স্পেস GHA স্পেস ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর লিখে ১৬৩২১ নম্বরে পাঠিয়ে ফিরতি এসএমএসে ফল জানা যাবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসইট admission.eis.du.ac.bd থেকে ফল জানা যাবে।

‘ঘ’ইউনিটে ভর্তিচ্ছু আবেদনকারীর সংখ্যা ছিল ৯৫ হাজার ৩৪১জন। পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ৭০ হাজার ৪৪০ শিক্ষার্থী। আর উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সংখ্যা ১৮ হাজার ৪৬৩ জন।

উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ২২-৩১ অক্টোবর পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে বিস্তারিত এবং বিষয় পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে বলা হয়েছে।

কোটায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীদের ১৭-২৪ অক্টোবরের মধ্যে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিস হতে সংগ্রহ করে সঠিকভাবে পূরণ করে জমা দেয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া ফল নিরীক্ষণের জন্য ফি প্রদান সাপেক্ষে ১৭-২২ অক্টোবরের মধ্যে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করা যাবে।