প্রধানমন্ত্রী দেওয়া ‘বীর নিবাসে’ মুক্তিযোদ্ধা ফুলমতি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া ‘বীর নিবাসে’ উঠলেন গাইবান্ধার সাদুল্লাপুরের বীরাঙ্গনা রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতি।
সোমবার এ মুক্তিযোদ্ধা নতুন বাড়িতে ওঠেন বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রহিমা খাতুন।
সাদুল্লাপুরের উত্তরপাড়ার বাসিন্দা বীরাঙ্গনা রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতি। তার ছেলে রতন রবিদাস মুচি, নিরঞ্জন রবিদাস ভ্যানচালক, সুজন রবিদাস মোটর মেকানিক ও মনিরাজ রবিদাস রংপুর কারমাইকেল কলেজে পড়েন।
একমাত্র মেয়ে সপ্তমী রবিদাশের বিয়ে হয়েছে গাইবান্ধায়।
ইউএনও রহিমা বলেন, রাজকুমারী রবিদাস ২০১৬ সালে মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতিবছর মুক্তিযোদ্ধাদের নানা উপহার প্রদান করেন। এরই ধারাবাহিকতায় রাজকুমারী রবিদাস বাড়ি পেলেন।
“মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অর্থায়নে ও এলজিইডির তত্ত্বাবধানে প্রায় ৯ লাখ টাকা ব্যয়ে উপজেলার উত্তরপাড়ায় সরকারি খাস জায়গায় ফুলমতির জন্য তৈরি করা হয়েছে ‘বীর নিবাস’। চার কক্ষের এ ঘরে সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে ওঠেন তিনি।”
এছাড়াও আলাদা একটি ল্যাট্রিন, গরু ও মুরগি রাখার ঘর নির্মাণ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
সোমবার ‘বীর নিবাসের’ উদ্বোধন করেন গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইউনুস আলী সরকার।
এ সময় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহারিয়া খাঁন বিপ্লব, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মেছের উদ্দিন সরকার, উপজেলা প্রকৌশলী মাজহারুল ইসলাম প্রমূখ।
এ নিয়ে রাজকুমারী রবিদাস ফুলমতি বলেন, “দেশ স্বাধীনের ৪৬ বছর পর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেয়েছি। এখন পেলাম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার। এ জন্য প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ।”

Inline
Inline