প্রতারণার আরেক মামলায় গ্রেফতার কায়সার হামিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রতারণার অভিযোগে রাজধানীর বনানী থানায় করা আরেক মামলায় সাবেক ফুটবলার কায়সার হামিদকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এসময় তার বিরুদ্ধে রাজধানীর বনানী থানায় করা প্রতারণার মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকা মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী তাকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন।

এর আগে রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ বনানীর দুই মামলায় তার জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন।

২১ জানুয়ারি তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক শামছুদ্দিন। অপরদিকে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ তার জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

২০১৪ সালে বনানী থানায় করা একটি মামলায় ২০ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোড থেকে তাকে গ্রেফতার করে সিআইডির একটি দল।

সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (ঢাকা মেট্রো-উত্তর) মীর্জা আব্দুল্লাহেল বাকী বলেন, নিউওয়ে মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ নামে একটি প্রতিষ্ঠান ছিল কায়সার হামিদের। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে বিভিন্নজনের কাছ থেকে লাভ বেশি দেয়ার কথা বলে টাকা নিয়েছিলেন। কিন্তু পরবর্তীতে টাকা দিতে পারেননি।

একপর্যায়ে আট বছর আগে প্রতিষ্ঠানটিই বন্ধ হয়ে যায়। এতে প্রতিষ্ঠানটিতে অর্থ লগ্নিকারীদের বেশ কয়েকজন তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। এর একটি মামলা সিআইডির ঢাকা মেট্রোর উত্তর অঞ্চল তদন্ত করছে।

মামলায় কায়সার হামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা ছিল।

জাতীয় ফুটবল দলের এক সময়ের অধিনায়ক কায়সার হামিদ বাংলাদেশে ফুটবল ইতিহাসে অন্যতম সেরা ডিফেন্ডার হিসেবে স্বীকৃত। তিনি ‘মোহামেডানের কায়সার হামিদ’ নামেই পরিচিত ছিলেন। তার মা রানী হামিদ বাংলাদেশের সেরা দাবাড়ুদের একজন। তার বাবা প্রয়াত সেনা কর্মকর্তা আবদুল হামিদও ক্রীড়া সংগঠক হিসেবে পরিচিত ছিলেন।