‘পৃথিবীর এমন কোন এক্স-রে মেশিন নেই যে মায়ের চোখের চেয়ে তীক্ষ্ণ’

এস এম মারুফ, বেনাপোল প্রতিনিধি : যশোর-১ আসনের এমপি আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দিন বলেছেন, ‘পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শিক্ষক হচ্ছেন একজন মা। মা যদি সন্তানদের সাথে বন্ধুত্ব সুলভ আচারণ করতে পারে এবং ওই সন্তান কি চায় তা উপলব্ধি করতে পারে তা হলে সেই সন্তান হবে আদর্শবান সন্তান। সে সন্তান শুধু ওই মায়ের নয়। সে হবে এ দেশের আদর্শবান আলোকিত সন্তান, এবং দেশের কল্যানের সম্পদ’।

রোববার (২৭ জানুয়ারি) বেলা ১২ টার সময় বেনাপোল হাইস্কুল মাঠে বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে সংবর্ধনা, কৃতি শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী আলোচনা ও মা সমাবেশ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। উক্ত স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জুলফিকার আলী এতে সভাপতিত্ব করেন।

এসময় শেখ আফিল উদ্দিন বলেন, ‘পৃথিবীর এমন কোন এক্স-রে মেশিন নেই যে মায়ের চোখের চেয়ে তীক্ষ্ণ। এক্স-রে করে শরীরের কোথায় কি আছে জানা যায়। কিন্তু মা যদি সন্তানের সাথে বন্ধুত্বের মত চলে তাহলে ওই সন্তানের কোথায় কি চাহিদা সে কি চায় তা একমাত্র মা’ই বলে দিতে পারবে। তাই মাকে তার সন্তানকে সম্পদে পরিনত করার জন্য সময় দিতে হবে। তাকে ভালবাসতে হবে। বুকে জড়িয়ে আদর করতে হবে’।

তিনি আরও বলেন, ‘আজ ১৩০ বছরের প্রতিষ্ঠিত এই বেনাপোল হাইস্কুল। এই স্কুলের মান হবে শুধু উপজেলায় নয় যশোর জেলার মধ্যে শ্রেষ্ঠ। প্রতিটি শিক্ষার্থীকে এমন ভাবে গড়ে তুলতে হবে সে যেন সম্পদে পরিনত হয়। কারন সম্পদ মানুষ পাহারা দেয়। আর নিজে সম্পদে রুপান্তরিত হলে সেই সম্পদই সেই মানুষকে পাহারা দিবে। সীমান্তের যত স্কুল কলেজ আছে সেই সকল প্রতিষ্ঠানে অন্তত শিক্ষার জন্য যখন যা প্রয়োজন আমাকে জানালে আমি তা পুরণ করার চেষ্টা করব’।

যশোর-১ আসনের এমপি শিক্ষকদের উদ্দেশ্য বলেন, ‘শিক্ষার্থীরা কি চায় কোন আঙ্গিকে পাঠদান দিলে শিক্ষার্থীরা গ্রহন করবে সেই আঙ্গিকে পাঠদান দিতে হবে। পুরাতন পাঠদান দিলে এই ডিজিটাল যুগের শিক্ষার্থীরা গ্রহন করবে না। সময় বদলেছে। পৃথিবী মানুষের হাতের মুঠোয় তাই আগে শিক্ষকদের বুঝতে হবে শিক্ষার্থীরা কি চায়। সেই চাওয়াকে প্রাধান্য দিয়ে শিক্ষা দিতে হবে’।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, উপজেলা ভাইচ চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, শার্শা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি অহিদুজ্জামান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার হাফিজুর রহমান প্রমুখ।

এর আগে তিনি বেলা সাড়ে ১১ টার সময় স্কুলের নতুন ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন এবং প্রাক্তন ৬৮ জন বেনাপোল হাইস্কুলের প্রাক্তন কৃতি শিক্ষাথীদের মাঝে ক্রেষ্ট বিতরণ করেন।