পুলিশের ওপর হামলা সহ্য করব না: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রিজন ভ্যানে হামলার মতো ঘটনা সহ্য করা হবে না বলে বিএনপিকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার রাতে গণভবনে পুলিশের নতুন মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারিকে র‌্যাংক ব্যাচ পরিয়ে দেয়ার ঘটনায় প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

মঙ্গলবার হাইকোর্টের সামনে ঘটনা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘গতকালও একটা ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। এ রকম জঘন্য ঘটনা আমরা দেখিনি। এ ধরনের জঘন্য ঘটনা আমরা কোনো দিন সহ্য করব না।’

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় রায়ের তারিখ ঘোষণার পর বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় যুক্তি উপস্থাপনও শুরু হয়েছে। আর প্রথম দিন বিএনপি চেয়াপারসন আদালত থেকে ফেরার পথে হাইকোর্ট এলাকায় তুলকালাম হয়।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ওবায়দুল হক নাসিরসহ দুই নেতাকে ছিনিয়ে নিতে কর্মীরা প্রিজন ভ্যানে হামলা চালায়। তারা ভ্যানের দরজা ভেঙে ফেলে এবং একজন পুলিশ সদস্যের অস্ত্রও কেড়ে নিয়ে ভেঙে দেয়।

এই ঘটনার পর তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে পুলিশ আটক করে ৬৯ জনকে। পরে রাতে আটক করা হয় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় এবং সহ সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিতকে। পরদিন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আজিজুল বারী হেলালকেও আটকের অভিযোগ করেছে বিএনপি।

নতুন আইজিপির উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ থাক- সেটাই আমরা চাচ্ছি। উন্নয়নের ধারা যেন অব্যাহত থাকে।’

দেশে মাদকের ভয়াবহ বিস্তারের কথা উল্লেখ করে শেখ হাসিনা মাদকের বিরুদ্ধে বড় ধরনের অভিযানে যেতেও আইজিপিকে নির্দেশ দেয়।
দশম সংসদ নির্বাচনের আগে এবং সরকারের এক বছর পূর্তিতে বিএনপির সরকারবিরোধী আন্দোলনে পুলিশের বলিষ্ঠ ভূমিকারও প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী। আগামীতেও কেউ দেশে বিশৃঙ্খলা করতে চাইলে তাদের ঠেকাতে উদ্যোগী হওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, সদস্য বিদায়ী আইজিপি এ কে এম শহীদুল হকসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।