পিতৃ পরিচয় আদায়ে সমাজের দ্বারেদ্বারে পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী সুমি

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা সংবাদদাতা : পলাশবাড়িতে জোরপূর্বক অবৈধ সম্পর্কে গর্ভবতী পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী অবশেষে মেয়ে সন্তানের মা হলেন। পিতৃ পরিচয়ের স্বীকৃতি আদায়ে ভূক্তভোগী পরিবারটি বিচারের আশায় ঘুরছে সমাজপতিদের দ্বারেদ্বারে। এ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার বরিশাল ইউনিয়নের ভগবানপুর গ্রামে।
জানা যায়, উপজেলার একই ইউনিয়নের ভগবানপুর গ্রামের সাজু মিয়ার ছেলে নারীলোভী লম্পট বিবাহিত হেলাল মিয়া তার সম্পর্কে ফুফাতো বোন বরিশাল চকপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেনীর ছাত্রী। সুমির সাথে মিথ্যা ভালবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে। ভাল মানুষরুপী এক সন্তানের জনক হেলাল এক পর্যায় সুযোগবুঝে সুমির মতামত উপেক্ষা করে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষন করলে সুমি গর্ভবতী হয়ে পড়ে ।
সদ্যভূমিষ্ট সন্তানের প্রকৃত পিতৃ পরিচয় নিয়ে ওই এলাকাবাসীর মাঝে শুরু হয় নানা চাঞ্চল্যেকর।
অনশনরত থেকে সুমি তার আদুরে সন্তান কোলে নিয়ে পিতৃ পরিচয়ের দাবীতে গত কয়েকদিন ধরেই হেলালের পরিবারের নিকট অব্যাহত ধন্না দিয়ে আসছে।