পাবনায় মা-ছেলেসহ তিনজনকে গলা কেটে হত্যা

পাবনা সংবাদদাতা : পাবনার বেড়ায় মা, ছোট ভাই ও আপন খালাকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে পাষণ্ড এক যুবকের বিরুদ্ধে। বুধবার ভোরে উপজেলার নতুন ভারেঙ্গা ইউনিয়নের সোনাপদ্মা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

পরিবারের বরাত দিয়ে বেড়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আশিষ বিন হাসান জানান, ভোর চারটার দিকে সোনাপদ্মা গ্রামের মিঠু হোসেনের বড় ছেলে তুহিন হোসেন ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মা বুলি খাতুন, ছোট ভাই তুষার হোসেন ও খালা নছিমন খাতুনকে গলা কেটে ও কুপিয়ে হত্যা করে।

খবর পেয়ে সকালে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে। ঘটনার পর থেকে ঘাতক তুহিন পলাতক রয়েছে। হত্যার কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে পারিবারিক বিরোধের জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে ধারণা করছে পুলিশ।

তুহিনের স্ত্রী রুনা খাতুন পুলিশকে জানিয়েছেন, দুই মাস আগে তার স্বামী টাইফয়েড জ্বরে আক্রান্ত হয়। তারপর থেকে তুহিনের মেজাজ খিটখিটে হয়ে উঠে। মাঝেমধ্যেই তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে মানুষের সঙ্গে ঝগড়া বিবাদে জড়িয়ে পড়তো সে।

Inline
Inline